বদলাপুর মারগাও ! চার্চিল-কে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়নের পথে মোহনবাগান !

বদলাপুর মারগাও ! চার্চিল-কে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়নের পথে মোহনবাগান !

কল্যাণীর হারের বদলায় মারগাও-তে ৩ গোল। চার্চিল-কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নের পথে বাগান।

  • Share this:

#গোয়া : মোহনবাগান ৩ - চার্চিল ০। কল্যাণীতে চারের বদলায় ফাতোরদায় তিন। এখানে ছিল ৪-২। আর শনিবার সন্ধ্যায় মান্ডবী নদীর তীরে ক্লিনশিট ৩-০। বদলার ১০৮। 'চাক দে'-র কবীর খানের মতই মর্যাদার চার্চিল ম্যাচ টা বেইতিয়াদের দিয়ে বার করে নিলেন কোচ কিবু ভিকানা। সুদে-আসলে গুরুদক্ষিণা মিটিয়ে দিলেন কিবুর ছেলেরা। গোয়ার মাঠে একচেটিয়া খেলে শেষ কবে কোন গোয়ান ক্লাবকে কোন কলকাতার ক্লাব ৩-০ হারাচ্ছে, মনে পড়ে না! দেখতেও তো ভালো লাগে! ১৩ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট। আই লিগের অন্য ক্লাবগুলোর ধরাছোঁয়ার বাইরে সবুজ-মেরুন। লিগ খেতাব বাগানে উঁকি মারছে। সৃঞ্জয়, দেবাশিষদের ক্লাবের ট্রফি আর্কাইভ ঝাড়পোঁছ করার সময় এসে গেছে। কারণ বাগানে বসন্ত এসে গেছে। আই লিগ চ্যাম্পিয়নশিপ এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা। একই সঙ্গে ফুটবল পরিসংখ্যানবিদদের কাজটাও বাড়িয়ে দিয়েছেন নাওরেমরা।

শেষ কবে কত ম্যাচ বাকি থাকতে চ্যাম্পিয়নশিপ এসেছে? এবার তো সেই নিয়ে চর্চা-গবেষণা শুরুর সময়। আসলে এক-একটা সময় যায়! যখন তেল খাওয়া মেশিনের মতোই চলতে শুরু করে গোটা দলটা। মোহনবাগানের এখন সেই সময় চলছে। যেভাবে  দৌড়চ্ছে  মোহনবাগান তাতে গবেষণার বিষয় হতে পারে কোথায় থামবে এই দলটা? পরের মরশুমে এটিকে-মোহনবাগান হওয়ার পর এই দলের অনেকেই হয়তো থাকবেন না! কোচ কিবু থেকে বাবাকর, শংকর রায়, তুরশভ, আশুতোষ, গঞ্জালেজ, সুহেররা ট্র‍্যাজিক হিরো হয়েই থেকে যাবেন। কিবুর কৃতিত্ব গোটা দলটাকে ঠিক সময়ে এক সুতোয় বেঁধে ফেলতে পেরেছেন। বেইতিয়া ডানা ঝাপটাতে শুরু করলেই  সবুজ গালিচায় ফুল ফোটাচ্ছে সবুজ-মেরুন। ঘরের মাঠে চার্চিল কে এদিন দাঁত ফোটাতে দেয়নি কিবুর ধুরন্ধর ফুটবল অঙ্ক। প্লাজা যে প্লাজা কলকাতার ক্লাবগুলোর ত্রাস, তাকেও বুদ্ধি করে সাধারনের স্তরে নামিয়ে আনলেন সাইরাস-মোরান্তেকে দিয়ে। এই মোহনবাগান অনন্য, অনবদ্য। এই মোহনবাগান কোথায় থামবে কেউ বলতে পারবে না। কারণ বাগানে বসন্ত এসে গেছে!

PARADIP GHOSH 

First published: February 22, 2020, 9:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर