মাঠে বরফ, গ্যালারিতে সুন্দর মুখ, দারুণ জয়, মোহন ড্রেসিংরুমের সব খবর...

মাঠে বরফ, গ্যালারিতে সুন্দর মুখ, দারুণ জয়, মোহন ড্রেসিংরুমের সব খবর...

লেপার্ড শিকার বাগ্গুর। মাইনাসে সফল 'মিশন কাশ্মীর'। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে মোহনবাগান

  • Share this:

Paradip Ghosh

#শ্রীনগর: পরিকল্পনা ছিল, ম্যাচ জিতে হোটেলে ফিরে ফুটবলারদের নিয়ে বার্থডে কেক কাটবেন৷ বাদ সাধলেন বেইতিয়া। স্প‍্যানিয়ার্ডের ডানা ঝাপটানোতেই শেষ স্নো লেপার্ডদের যাবতীয় জারিজুরি। রিয়াল কাশ্মীর কর্ণধার সন্দীপ সাট্টুর বার্থডে সেলিব্রেশন থমকে দিলেন কিবু ভিকানার ছেলেরা। মাইনাস তাপমাত্রায়, কনকনে ঠান্ডায় রিয়াল কাশ্মীর-কে ২-০ গোলে হারালো মোহনবাগান। ৫ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে বছর শুরুতেই আই লিগের টেবিল শীর্ষে উঠে এল সবুজ মেরুন।

আই লিগের ইতিহাসে প্রথমবার ম্যাচ শুরু হয়েছিল সকাল সাড়ে এগারোটা-তে। কিন্তু তাতেও তাপমাত্রা ছিল হিমাঙ্কের নিচে। শ্রীনগরের টিআরসি স্টেডিয়ামের বরফের পাতলা আস্তরণ। বরফ সরিয়ে ম্যাচ শুরু হতে কিছুটা সময় লাগলো। গ্যালারি ততক্ষনে হাউসফুল। পরিসংখ্যান বলছে, রবিবার সকালে সব প্রতিকূলতা সরিয়ে রেখে ১২ হাজার দর্শক উপস্থিত ছিলেন মোহনবাগান-রিয়েল কাশ্মীর ম্যাচ দেখতে৷

2484_IMG-20200105-WA0171

কাশ্মীরিদের নিরাশ করেনি মোহনবাগান। সাধ্যমত যুঝেছে রিয়াল কাশ্মীর। ৯০ মিনিট সমান গতিতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণের ম্যাচে মাঝমাঠের রাশ ছিল বেইতিয়া, শেখ সাহিল, নাওরেম, গনজালেজদের দখলে। অদূর ভবিষ্যতে সুনীল ছেত্রী আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে সরে দাড়ালে ভারতীয় ফুটবলের সম্পদ হতে পারেন অনূর্ধ্ব সতেরো বিশ্বকাপ দলের সদস্য নাওরেম। ছোটখাটো চেহারাতেও দুরন্ত স্কিল, অসাধারণ ক্ষিপ্রতা। একের বিরুদ্ধে এক পরিস্থিতিতে প্রতিপক্ষকে টলিয়ে দিচ্ছিলেন পাহাড়ি ছেলেটা। গ্যালারির অভিব্যক্তি বলে দিচ্ছিল ম্যাচের সেরা বেইতিয়া। পুরো দলটাকে পরিচালনা করতে পারেন স্প্যানিয়ার্ড। কিবুর বাগানে ইঞ্জিন বেইতিয়া-ই।

আরও পড়ুন -Ind vs SL : প্রথম টি টোয়েন্টি ম্যাচের আগে বিরাটের চোট, ভাবনায় থিঙ্কট্যাঙ্ক

৭২ মিনিটে ধনচন্দ্রর লম্বা থ্রো থেকে সাইরাসের বাড়ানো বলে বক্সের মধ্যে থেকে হাফভলিতে বাগানের প্রথম গোল। সেটাও তো বেইতিয়ার-ই। মিনিট খানেক পরেই দ্বিতীয় গোল। এবার সেই বিস্ময় প্রতিভা নাওরেম। নতুন বছরের শুরুতে সচল বাগান। তবে প্রথম ম্যাচ বলেই কী না, কে জানে! খানিকটা গুটিয়ে থাকলেন বাগানের নতুন রিক্রুট পাপা বাবাকর। রিয়েল ডিফেন্সে কাটাবের কাঁটাতার টপকে স্কোরলাইনে নাম তোলা হল না সেনেগালের স্ট্রাইকারের। গ্যালারির চাপে বাজি আরমান্ড এর পরিবর্তে ক্রিজো-ক নামানোটাই কাল হলো কাশ্মীরের ক্লাবের। মাঝমাঠে ব্লকিং থেকে অ্যাটাক সবেতেই কার্যকরী ভূমিকা নিচ্ছিলেন বড়ো চেহারার বাজি।

সবশেষে আরেকজনের কথা বলতেই হয়। শ্রীনগরের টিআরসি স্টেডিয়ামে লাল জ্যাকেট পড়া বাঙালির উপস্থিতি। গঙ্গাপাড়ের ক্লাবে প্রচলিত মিথ, বাগানের ডেসিংরুমে ওনার উপস্থিতি না কী অনেক সমীকরণ বদলে দেয়! ঠান্ডায় সিটিয়ে থাকা দলটার রয়েল বেঙ্গল টাইগার হয়ে স্নো-লেপার্ড শিকারের নেপথ‍্যে সেই চালু মিথ কী না, সেটা অবশ্য তর্কসাপেক্ষ!

আরও দেখুন

First published: 04:54:15 PM Jan 05, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर