খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নিজেদের আন্ডারডগ বলছেন ফাউলার, প্রতিপক্ষকে সমীহ হাবাসেরও! ডার্বির উত্তেজনায় ফুটছে বাংলা

নিজেদের আন্ডারডগ বলছেন ফাউলার, প্রতিপক্ষকে সমীহ হাবাসেরও! ডার্বির উত্তেজনায় ফুটছে বাংলা
পরস্পরকে সমীহ হাবাস- ফাউলারের৷ Photo-FILE/FACEBOOK

গোয়ার দর্শকশূ্ন্য তিলক ময়দানে খেলা হলেও বাংলায় সমর্থকরা উত্তেজনায় ফুটছেন৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে কটাক্ষ পাল্টা কটাক্ষ৷

  • Share this:

#কলকাতা: নতুন টুর্নামেন্ট, নতুন দল, ডার্বিতে নতুন দুই কোচের মগজাস্ত্রের লড়াই৷ সর্বোপরি দর্শকহীন স্টেডিয়ামে ডার্বি৷ কিন্তু লাল হলুদ বনাম সবুজ মেরুনের লড়াই ঘিরে বাঙালির চিরকালীনউত্তেজনায় কোনও খামতি নেই৷ বরং আইএসএল-এর মোড়কে তা যেন আরও বেড়েছে৷ আর এই উত্তেজনা থেকে দলকে দূরে রাখতেই যেন মরিয়া অ্যান্টেনিও লোপেজ হাবাস এবং রবি ফাউলার৷ প্রথম বার আইএসএল-এ কোচিং করাতে আসা রবি ফাউলারের মতো দু' বার এটিকে-কে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন করা হাবাসের গলাতেও প্রতিপক্ষকে নিয়ে সমীহের সুর৷ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে ফাউলার তো নিজের দলকে আন্ডারডগও বলে দিয়েছেন৷

পুরোন দল ধরে রাখায় এবং ইতিমধ্যেই আইএসএল-এর প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নেওয়ায় এটিকে মোহনবাগানকেই এগিয়ে রাখছেন বিশেষজ্ঞরা৷ রয় কৃষ্ণ, ডেভিড উইলিয়ামস, তিরিদের মতো সফল বিদেশীদের সঙ্গে সবুজ মেরুন শিবিরের সবথেকে বড় ভরসা হাবাসের মগজাস্ত্র৷ ভারতীয় ফুটবলে যা পরীক্ষিত এবং চূড়ান্ত সফল৷ অন্যদিকে এসসি ইস্টবেঙ্গলে প্রায় সবকিছুই নতুন৷ জেজে, বলবন্তদের মতো অভিজ্ঞ ভারতীয়দের বাদ দিলে দলের বিদেশীদের কারওরই ভারতে বা আইএসএল-এ খেলার অভিজ্ঞতা নেই৷ বড় পরীক্ষা ভারতে প্রথমবার কোচিং করাতে আসা ফাউলারেরও৷ হাবাসের তুলনায় যাঁর কোচিং অভিজ্ঞতা অনেকটাই কম৷ তবে ছকে বাঁধা এ সব ফুটবল তত্ত্ব মেনে কবেই বা ডার্বির ফল নির্ধারিত হয়েছে৷ তাই অ্যান্টনি পিলকিংটন বনাম সন্দেশ জিঙ্ঘন, তিরি বনাম ম্যাঘোমা বা রয় কৃষ্ণা বনাম ড্যানি ফক্সদের লড়াই দেখতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা দু' দলের ভক্তরা৷

গোয়ার দর্শকশূ্ন্য তিলক ময়দানে খেলা হলেও বাংলায় সমর্থকরা উত্তেজনায় ফুটছেন৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে কটাক্ষ পাল্টা কটাক্ষ৷  হাবাস অবশ্য বলছেন, উত্তেজনার পুরোটাই নব্বই মিনিট মাঠের মধ্যে সীমাবদ্ধ৷ আর ফাউলার নিজেদের আন্ডারডগ বলেও চমক দেওয়ার আশায় রয়েছেন৷

এই ম্যাচে চোটের কারণে মাইকেল সুসাইরাজকে পাচ্ছেন না হাবাস৷ যার ফলে কিছুটা হলেও নতুন করে পরিকল্পনা সাজাতে হচ্ছে তাঁকে৷ সুসাইরাজের পরিবর্তে প্রথম এগারোয় হাবাস কী চমক দেন, সেটাই দেখার৷ তবে হাবাস- ফাউলার দু' জনেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে ভালবাসেন৷ ফলে আইএসএল-এর প্রথম কলকাতা ডার্বিতে উপভোগ্য ম্যাচ দেখার অপেক্ষাতেই ফুটবল ভক্তরা৷ পাশাপাশি, দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলা হওয়ায় ফুটবলাররাও অনেক চাপমুক্ত হয়ে মাঠে নেমে নিজেদের সেরাটা দিতে পারবেন, এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 27, 2020, 10:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर