• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতে শীর্ষে মোহনবাগান

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতে শীর্ষে মোহনবাগান

মোহনবাগান: ১ ( ড্যানিয়েল সাইরাস-১৮'), ইন্ডিয়ান অ্যারোজ: ০

মোহনবাগান: ১ ( ড্যানিয়েল সাইরাস-১৮'), ইন্ডিয়ান অ্যারোজ: ০

মোহনবাগান: ১ ( ড্যানিয়েল সাইরাস-১৮'), ইন্ডিয়ান অ্যারোজ: ০

  • Share this:

মোহনবাগান: ১ ( ড্যানিয়েল সাইরাস-১৮') ইন্ডিয়ান অ্যারোজ: ০

#কলকাতা: ভূস্বর্গ থেকে সমতলে ফিরেই সাধারণ সবুজ-মেরুন। কাশ্মীর ম্যাচের সেই টানা পাঁচ-ছয়টা পাস, সেই ছন্দ উধাও কল্যাণীতে। বৃহস্পতিবার অ্যারোজের বিরুদ্ধে সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল কিবু ভিকুনার ছেলেরা। ম্যাচের শেষ কুড়ি মিনিট অ্যারোজের দৌড়ে নাস্তানাবুদ হওয়ার জোগাড়। কপাল ভাল, আঠেরো মিনিটে ড্যানিয়েল সাইরাসের গোলটা হয়ে গিয়েছিল। আর তাতেই সাধের তিন পয়েন্ট জমা পড়ল বাগানে। ছয় ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের মগডালে মোহনবাগান।

অ্যাভারেজ খেলেও কাজের কাজ হয়ে গেলে, তিন পয়েন্ট খাতায় জমা পড়লে ক্ষতি কী! শ্রীনগরের প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে তিন পয়েন্ট আনার পর কিবুর দলের কাছে প্রত্যাশা বেড়েছে। কাশ্মীর ম্যাচের মাপকাঠিতে অ্যারোজ ম্যাচে টেনেটুনে পাসমার্কটুকুই পাবেন বেইতিয়া,গঞ্জালেজরা। প্রথমার্ধে অ্যারোজের অনভিজ্ঞতার সুযোগ নিয়ে তাও মাঝেমধ্যেই গোলের মুখ খুলে ফেলছিলেন সুহের, নাওরেমরা। সময় গড়ানোর সাথে-সাথেই দাঁড়িয়ে পড়ল বাগান মাঝমাঠ। বয়সের ক্ষিপ্রতা আর ফিটনেসের সৌজন্যে কল্যাণীর দখল নেয় আয়ুষ অধিকারী, মনবীর সিং, গুরপ্রীত সিংরা। ভেঙ্কটেশের দলে ভাল স্ট্রাইকার থাকলে কল্যাণী থেকে খালি হাতে ফিরতে হতো না ইন্ডিয়ান অ্যারোজকে।

2977_5e173c6ae336d_mb arrows pic

সুযোগ পেয়েছিল মোহনবাগানও। প্রথমার্ধেই সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন সুহের। দ্বিতীয়ার্ধে বেইতিয়ার কর্ণার থেকে মোরান্তের হেড পোস্টে লেগে ফিরে আসে।। বিদেশিহীন অ্যারোজের বিরুদ্ধে ঝলমল করবে মোহনবাগান, প্রত্যাশা ছিল এটাই। আর সেখানেই ব্যর্থ কিবু ভিকুনার ছেলেরা। সহজ প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নতুন বিদেশি তুরসভকে দেখে নিতে পারতেন বাগান কোচ। কিন্তু শেষ কুড়ি মিনিট বাগান ডিফেন্সের খাবি খাওয়ার অবস্থা দেকে ঝুঁকি নেননি পোলিশ কোচ। অনুশীলনে ঝলমল করলেও ম্যাচে এখনও জাত চেনাতে ব্যর্থ সেনেগালের পাপা বাবাকর দিওয়ারা। লেভান্তে, গেটাফে ঘুরে আসা স্ট্রাইকার হাফচান্স থেকে গোল করে যাবেন, সেটাই তো প্রত্যাশিত। শ্রীনগরের অ্যাস্ট্রোটার্ফে না-হয় বাউন্সের সমস্যা ছিল। কল্যাণীর মাঠ নিয়ে আলেজান্দ্রো হোক বা ভিকুনা কস্মিনকালে কোন অভিযোগ শোনা যায়নি। তাহলে পাপার অসুবিধে কোথায়? উনিশের বড় ম্যাচের আগে মাঝে কিন্তু আর মাত্র একটাই ম্যাচ। চোদ্দ ডিসেম্বর অ্যাওয়ে ম্যাচে প্রতিপক্ষ পঞ্জাব এফসি। বাবা আর তুরসভের অ্যাসিড টেস্ট লুধিয়ানার গুরু নানক স্টেডিয়ামে। তবে ট্রান্সফার উইনডো খুলতেই দল গুছিয়ে নিয়েছেন সৃঞ্জয় বোস, দেবাশিস দত্তরা। বাগান কর্তাদের কৃতিত্ব সেখানেই।

Paradip Ghosh

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: