হটসিটে ‘সহকারী’ মারিও, চোখের জলে বিদায় আলের

হটসিটে ‘সহকারী’ মারিও, চোখের জলে বিদায় আলের

রাত জেগে বিমানবন্দরে সমর্থকদের ঢল ৷ চোখের জলে আলেজান্দ্রো বিদায়। হট সিটে আলের সহকারি মারিও।

  • Share this:

#কলকাতা: ট্রেভর জেমস মর্গ্যান থেকে ফিলিপ রাইডার। এই শহর দেখেছে তাবড় ফুটবল ম্যানেজার। সময়ের সঙ্গেই ওরা এসেছেন, আবার বিদায়ও নিয়েছেন। কিন্তু এই ছবি কবে দেখেছে শহর! বৃহস্পতিবার সকালে এমিরেটসের উড়ানে স্পেনে ফিরে যাচ্ছেন শহরের আরও এক নামী কোচ। আর তাকে বিদায় জানাতে বিমানবন্দরে হাজারো ফুটবল অনুরাগীর ঢল। বিদায় বেলায় সমর্থকদের চোখের জলে ভেসে গেলেন আলেজান্দ্রো মেনেন্দেজ গার্সিয়া।

ইস্টবেঙ্গলের সদ্য প্রাক্তন কোচের সঙ্গে শেষ দেখা করার জন্য সারারাত খোলা আকাশের নিচে কাটিয়েছেন এমন সমর্থকও রয়েছেন। কাকভোরে আলেজান্দ্রো বিমানবন্দরে পৌঁছতেই কার্যত সমর্থকদের ভালোবাসার বাহুডোরে ঘেরাও হলেন। ইস্টবেঙ্গলের প্রাক্তন কোচ বলতেন, "সমর্থকরাই আমার দলের নাম্বার টেন।"

 মাদ্রিদে ফেরার বেলায় স্প্যানিয়ার্ড সাক্ষী থাকলেন শহরের ১০ নম্বর জার্সির ইমোশনাল পাওয়ার-প্লের। কোচিং জীবনের রিয়াল মাদ্রিদের যুবদল থেকে থাইল্যান্ডের বুরিরাম এফসি। বিশ্বের তাবড় ক্লাবের ফুটবল দল সামলেছেন আলেজান্দ্রো। কিন্তু কলকাতা অনন্য হয়ে রইল তার সমর্থনের নিজস্বতা আর ভালোবাসার আত্মীয়তায়। সমর্থকদের আকুতি আর আবেগে যাওয়ার আগে চোখের কোন চিকচিক করে উঠলো পেশাদার স্প‍্যানিয়ার্ডের। আলেজান্দ্রোর উত্তরসূরি হিসেবে লাল-হলুদের হট সিটে বসছেন তারই একসময়ের সহকারি মারিও রিভেরা।

মঙ্গলবার আলেজান্দ্রো দায়িত্ব ছাড়ার পর পরবর্তী কোচের খোঁজে নেমেছিলেন কোয়েস ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। কোচের দৌড়ে নাম ছিল ছিল মোহনবাগানের প্রাক্তন কোচ করিমের।কিন্তু দলে স্প্যানিশ ফুটবলারদের উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতেই একসময় আলেজান্দ্রোর  স্প্যানিশ সহকারি মারিও-কে  চিফ-কোচ করে আনলো লাল হলুদ।

PARADIP GHOSH

First published: January 23, 2020, 1:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर