পাহাড়ে ঝকঝকে লালহলুদ, নেরোকার বিরুদ্ধে ৪-১ গোলে জয় ইস্টবেঙ্গলের

পাহাড়ে ঝকঝকে লালহলুদ, নেরোকার বিরুদ্ধে ৪-১ গোলে জয় ইস্টবেঙ্গলের

আইলিগের কাঙ্খিত জয়

  • Share this:

Paradip Ghosh

#ইম্ফল: অবশেষে ঝলমলে লাল-হলুদ। অবশেষে সাধের প্রথম জয়। তৃতীয় ম্যাচে এসে জয়ের হাইওয়েতে টিম আলেজান্দ্রো। ইম্ফলের মাঠে নেরোকাকে ৪-১ গোলে হারিয়ে আই লিগে প্রথম জয় ইস্টবেঙ্গলের। পেনাল্টিতে জোড়া গোল কোলাডোর। কাশ্মীর ও পঞ্জাব ম্যাচে আটকে যাওয়া লাল-হলুদ ব্রিগেড এদিন প্রথম থেকেই আক্রমণে ঝাঁঝ বাড়ায়। প্রথম দিকে কিছুটা অগোছালো থাকলেও ম্যাচ গড়ানোর সাথে সাথেই খুমান স্টেডিয়ামে জাঁকিয়ে বসেন জুয়ান মেরা, পিন্টু মাহাতোরা।

ম্যাচের ২০ মিনিটে মেরাকে বক্সের মধ্যে ট্রিপ করলে পেনাল্টি পায় ইস্টবেঙ্গল। পেনাল্টি থেকে ইস্টবেঙ্গলকে এগিয়ে দেন কোলাডো। স্কোরলাইন ১-০। কোলাডোর গোলের আগেই অবশ্য এগিয়ে যেতে পারতো ইস্টবেঙ্গল। মেরার মাইনাস প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে গোলে ঢুকে গেলেও সবাইকে অবাক করেই কর্ণার দেন রেফারি।

Photo Courtesy- Quess East Bengal FC/ Facebook Handle Photo Courtesy- Quess East Bengal FC/ Facebook Handle

কোলাডোর পেনাল্টি গোলের পর রেফারির দৃষ্টি আকর্ষণ করলে দেখা যায়, নেট ছেঁড়া। ৩১ মিনিটে রালতের দোষে গোলে করে নেরোকাকে ম্যাচে ফেরায় দিয়ারা। মিনিট দুয়েকের মধ্যে আবার গোল। এবার খুয়ান মেরা। নেরোকার বক্সের বাইরে থেকে ফ্রিকিকে গোল করেন স্প্যানিশ উইঙ্গার। স্কোরলাইন ইস্টবেঙ্গল ২, নেরোকা ১।

দ্বিতীয়ার্ধে  খুমান লুম্পকের পুরোটাই লাল-হলুদ। মণিপুরের দলটিকে দাঁড়াতেই দেননি আলেজান্দ্রোর ছেলেরা। রোনাল্ড সিং, সিয়াম হাঙ্ঘালদের রীতিমতো মাটি ধরিয়ে দেন কাশিম, জুয়ান, কোলাডোরা। এরইমধ্যে মার্কোসের হেড বক্সের মধ্যে হাতে লাগালে দ্বিতীয় পেনাল্টি পায় ইস্টবেঙ্গল। গোল করতে ভুল করেননি হাইমে কোলাডো। ৬৬ মিনিটে পিন্টুর পাস থেকে মার্কোসের গোলে ব্যবধান বেড়ে ৪-১।  কাশ্মীরের বিরুদ্ধে কোলাডোদের গতিময় ফুটবল ফিরে এল ইম্ফলে। জেল্লা ফিরল লাল-হলুদে। আলেজান্দ্রো যতক্ষণ, আই লিগে ইস্টবেঙ্গল ততক্ষণ। ইস্টবেঙ্গলের পরের ম্যাচ শনিবার ঘরের মাঠে ডগলাসের ট্রাউ এফসি-র বিরুদ্ধে। ​

আরও দেখুন

First published: 07:48:10 PM Dec 10, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर