পাঁচ বছরের জন্য সবুজ মেরুন জালে অমরিন্দর সিং

পাঁচ বছরের জন্য অমরিন্দর এটিকে মোহনবাগানে

পাঁচ বছরের দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তি করে এটিকে মোহনবাগানে এলেন অমরিন্দর সিং। মুম্বই সিটি এফসি-কে বিদায় জানিয়ে এটিকে মোহনবাগানে আসতে চলেছেন এই গোলরক্ষক

  • Share this:

    #দোহা: করোনা আবহে দেশের অধিকাংশ ফুটবল টুর্নামেন্ট বন্ধ। গতবার গোয়ার মাটিতে বায়ো বাবল রক্ষা করেই হয়েছিল আইএসএল। এবারও দেশের সেরা টুর্নামেন্ট কোনও একটি জায়গায় করতে হবে। গোয়ায় নাকি কলকাতায়, এখনও নিশ্চিত নয়। তবে কলকাতায় করার ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা যে চলছে সেটা ঠিক।

    ইস্টবেঙ্গল ইনভেস্টর সমস্যা নিয়ে জর্জরিত। ভবিষ্যৎ কী এখনও ঠিক বোঝার উপায় নেই। সমর্থকদের দীর্ঘশ্বাস বাড়ছে। তবে চুপ করে বসে নেই এটিকে মোহনবাগান। গতবার ফাইনালে হারের পর এবার নতুন লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়তে চায় সবুজ মেরুন ব্রিগেড। তারই অন্যতম পদক্ষেপ নেওয়া হল সোমবার। পাঁচ বছরের দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তি করে এটিকে মোহনবাগানে এলেন অমরিন্দর সিং।

    মুম্বই সিটি এফসি-কে বিদায় জানিয়ে এটিকে মোহনবাগানে আসতে চলেছেন এই গোলরক্ষক। সেই মতো এবার সবুজ-মেরুন জার্সি গায়ে চাপাবেন ২৮ বছরের এই পঞ্জাব তনয়। তাও আবার পাঁচ বছরের জন্য। তেকাঠির নীচে তিনি সবুজ-মেরুনের ভরসা হয়ে উঠতে পারবেন কিনা সেটা তো সময় বলবে। তবে পাঁচ বছরের চুক্তিতে দারুণ খুশি তিনি।

    এই মুহূর্তে জাতীয় দলের সঙ্গে দোহায় রয়েছেন তিনি। সেখান থেকেই জানালেন এর আগে হাবাসের কোচিংয়ে খেললেও সেটা খুব কম সময়ের জন্য ছিল। তবে এবার পাঁচ বছরের জন্য যোগ দিলাম। হাবাসের সঙ্গে আমার ভাবনা চিন্তা মেলে। উনি ভারতীয় ফুটবলারদের মধ্য থেকে সেরা খেলা বের করে আনতে পারেন। তাই এই যোগদানের জন্য আমার ফুটবল জীবনে এক নতুন অধ্যায় রচনা হতে চলেছে।

    এর আগেও কলকাতায় খেলছেন পঞ্জাবের মাহিলপুরের এই ফুটবলার। ২০১৫-১৬ মরসুমে আন্তনিয়ো লোপেজ হাবাসের প্রশিক্ষণে খেলছেন অমরিন্দর। ফের একবার তাঁর প্রশিক্ষণে খেলবেন ২০১৬ সালের আইএসএল-এ সোনার গ্লাভস জয়ী গোল রক্ষক। অরিন্দম ভট্টাচার্যের সবুজ মেরুন জার্সি গায়ে ধারাবাহিক পারফর্ম করলেও কয়েকটি ম্যাচে তাঁর ভুলের মাশুল গুনতে হয়েছে সবুজ মেরুন শিবিরকে। ধিরজকে আগেই রিলিজ করে দেওয়া হয়েছে। তাই একজন যোগ্য গোলরক্ষকের প্রয়োজন ছিল। অমরিন্দর চলে আসায় সেই লক্ষ্য পূরণ হল হাবাসের দলের।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: