রিভার্স সুইপে ১০০ মিটার ছয় ম্যাক্সওয়েলের, শটের প্রশংসায় বাকরুদ্ধ নেটিজেনরা !

রিভার্স সুইপে ১০০ মিটার ছয় ম্যাক্সওয়েলের, শটের প্রশংসায় বাকরুদ্ধ নেটিজেনরা !

ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। কমেন্টের ভিড়ে মজেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা

ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। কমেন্টের ভিড়ে মজেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা

  • Share this:

সিরিজের প্রথম ম্যাচেই তাঁর ঝোড়ো ইনিংস বুঝিয়ে দিয়েছিল, আবার স্বমহিমায় ফিরেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। গতকালের ম্যাচে সেই দুরন্ত ফর্মেরই এক ঝলক মিলল। কুলদীপ যাদবের বলে রিভার্স সুইপ করেন গ্লেন। আর বল গিয়ে পড়ে মানুকা ওভাল স্টেডিয়ামের মাঝে। এর পর থেকেই এই দুর্দান্ত শর্টের জাদুতে মজেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। ট্যুইটারে একের পর এক ভিডিও শেয়ার করে অস্ট্রেলিয়ার এই তারকা ব্যাটসম্যানের প্রশংসা করেছেন তাঁরা।

চলতি IPL সিজনে একটিও ভালো ইনিংস পাওয়া যায়নি গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের (Glenn Maxwell) ব্যাট থেকে। কিন্তু দলের জার্সি গায়ে দিতেই যেন চেনা ফর্মে ফিরে এসেছেন তিনি। প্রথম ম্যাচেই ১৯ বলে ৪৫ রানের দারুণ ইনিংস খেলছিলেন। গতকালের ম্যাচেও একটা সময় বোলারদের চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। মাঝে যখন অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের গতি কমে যায়, বেশ কয়েকটি উইকেট পড়ে যায়, সেই সময়ে আবার চেনা ছন্দে ধরা দেন ম্যাক্সওয়েল। এ দিন ৩৮ বলে ৫৯ রান করেন তিনি। ঝুলিতে ছিল তিনটি চার ও চারটি ছয়। তবে এর মাঝে চর্চায় উঠে এসেছে ম্যাক্সওয়েলের একটি ছয়।

তখন ৪৩তম ওভার। বল করছিলেন স্পিনার কুলদীপ যাদব (Kuldeep Yadav)। ওভারের তৃতীয় বলে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান প্রায় পুরোপুরি বাঁ-দিকে ব্যাট ঘুরিয়ে একটি দুরন্ত রিভার্স সুইপ করেন। এখানেই শেষ নয়। এই রিভার্সের সুইপটির জোরে ১০০ মিটার ছয় মারেন তিনি। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। কমেন্টের ভিড়ে মজেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

তবে ভারতীয় ফ্যানদের স্বস্তি দেন যশপ্রীত বুমরাহ। ৪৫ ওভারের একটা ইয়োর্কারে ম্যাক্সওয়েলের ইনিংসের সাঙ্গ করেন তিনি।

পর পর দুটি ওয়ান ডে ম্যাচে হারের পর গতকাল ক্যানবেরা মানুকা ওভালে জয়ের মুখ দেখল ভারত। এ দিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে কোহলি ব্রিগেড। শুরুতেই অ্যাবটের বলে ফিরতে হয় শিখর ধাওয়ানকে (Shikhar Dhawan)। পরে শুভমন গিল ও অধিনায়ক বিরাট কোহলির (ViratKohli) একটি পার্টনারশিপ গড়ে ওঠে। ওয়ান ডে ম্যাচে দ্রুততম ১২,০০০ রান পূর্ণ করার পাশাপাশি ৭৮ বলে ৬৩ রান করেন কোহলি। এর পর মিডল অর্ডারে ভাঙন ধরে। রাহুল বা শ্রেয়স, কেউই দাঁড়াতে পারেননি। ১৫২ রানে পাঁচটি উইকেট পড়ে যায় ভারতের। তবে জাদেজা ও হার্দিক পাণ্ড্য ম্যাচের রং বদলে দেন। জাদেজার ৫০ বলে ৬৬ ও হার্দিকের ৭৬ বলে ৯২ রানের ইনিংসের সুবাদে ৩০০-এর গণ্ডি পেরিয়ে যায় ভারত।

অন্য দিকে, গতকাল ওয়ার্নার ছাড়াই ৩০৩ রান তাড়া করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। তবে ফের ভালো ইনিংস খেলেন অধিনায়ক ফিঞ্চ। ৮২ বলে ৭৫ রান করেন অ্যারন ফিঞ্চ। এর পর ক্যামেরন গ্রিনের ২১, অ্যালেক্স ক্যারের ৩৮, অ্যাস্টন আগারের ২৮ রানের হাত ধরে ধীরে ধীরে এগোচ্ছিল অজিদের ইনিংস। মাঝে শুধু ম্যাক্সওয়েলই বড় ইনিংস খেলার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। ১৩ রানের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে যায় ভারত। সিরিজ শেষ হয় ২-১-এ।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: