• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • বাবার চিকিৎসার টাকা জোগাড় হয়নি, আত্মঘাতী ছেলে

বাবার চিকিৎসার টাকা জোগাড় হয়নি, আত্মঘাতী ছেলে

  • Share this:
    হাসপাতালে বাবার চিকিৎসার খরচা জোগাড় করতে না পেরে কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করল ছেলে। ঘটনাটি দুর্গাপুরের কুড়ুরিয়া ডাঙ্গার মিলনপল্লী এলাকার।মৃতের নাম আকাশ কর। বছর একুশের আকাশের দেহ তার বাড়ীর সামনের একটি কুয়ো থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।প্রথমে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয় হয় আকাশকে। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। আকাশের বাবা নিমাই কর করোনা আক্রান্ত হয়ে দুর্গাপুরের শোভাপুরে বেসরকারী এক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। হাসপাতালের বিল  প্রায় লাখ তিনেক টাকার মতো হয়, কোনোক্রমে দেড় লাখ টাকা জোগাড় করতে পেরেছিলো আকাশ, বাকি টাকা জোগাড় করতে না পারায় অভিমানে বাড়ীর সামনে থাকা একটি কুয়োতে ঝাঁপ দেয় আকাশ। অনেক খোঁজাখুজির পরও আকাশকে খুঁজে না পেয়ে, সন্দেহ হয় পড়শীদের। তারপর সামনের কুয়োতে আকাশকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা তড়িঘড়ি খবর দেয় পুলিশকে। পুলিশ এসে এই যুবককে উদ্ধার করে দুর্গাপুর বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। আকাশ একমাত্র সন্তান ছিল পরিবারের, আর ছোটোখাটো অটো পার্সের দোকান করে কোনোক্রমে চলতো পরিবারের উপার্জন। এই ঘটনায় এখন শোকের ছায়া এলাকায়। অন্যদিকে, দুর্গাপুরের সেন মার্কেট সবজি বাজারে সকাল থেকেই উপচে পড়া ভিড়। রাজ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে কার্যত লকডাউন। করোনা রুখতে তৎপর রাজ্য প্রশাসন। সবজি বাজার সকাল 10 টা পর্যন্ত খোলা থাকার নির্দেশ দিয়েছে। সকাল দশটার আগেই উপচেপড়া ভিড় সবজির বাজারে। সেন মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে সচেতন ও তার প্রচার করা হচ্ছে মাস্ক পড়ার করার কথা জানানো হচ্ছে। এ বিষয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর শিপুল সাহা জানিয়েছেন তারা সকাল থেকেই মানুষজনকে সচেতন করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। কিন্তু সবজি এবং মাছ বাজারে কোন মতেই ভিড় সম্ভব নয়। ভীর বেড়ানোর জন্য বাজার থেকে দু\'ভাগে ভাগ করার পরিকল্পনা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
    First published: