Nimta : আহত ডেলিভারি বয়ের অনুরোধে নিজেই গন্তব্যে পৌঁছে দেন খাবার, পুরস্কৃত সেই মানবিক পুলিশকর্মী

তাঁর মানবিক আচরণে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় ওঠে

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই রাতারাতি রাজ্য পুলিশের মানবিক মুখ হয়ে ওঠেন সুজয় বাবু (Sujoy Biswas)

  • Share this:

নিমতা : দিনটি ছিল ১৪ অগাস্ট ৷ সকালে ডিউটি করার সময় মাঞ্জা সুতোর ধারে খাবার সরবরাহ সংস্থা অ্যাপের ডেলিভারি বয়ের গলা ফালাফালা হয়ে যায় ৷ সেই রক্তাক্ত যুবককে শুধু উদ্ধারই নয়, আহত যুবকের অনুরোধে তাঁর চাকরি বাঁচাতে পুলিশের পোশাকেই পিঠে তুলে নেন খাবারের ব্যাগ ৷ তার পর সেই ব্যাগ নিয়ে নির্দিষ্ট জায়গায় খাবার পৌঁছে দেন  ব্যারাকপুর পুলিশ  কমিশনারেট-এর  ট্রাফিক পুলিশ কনস্টেবল সুজয় বিশ্বাস |

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই রাতারাতি পুলিশের মানবিক মুখ হয়ে ওঠেন সুজয় বাবু | তাঁর মানবিক আচরণে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় ওঠে | সুজয় বিশ্বাস কর্মরত ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেট এলাকায় নিমতা ট্রাফিক গার্ডের কর্মী হিসাবে |  ডেলিভারি বয় সন্দীপ রায় সে দিন যে ভাবে আহত হয়েছিলেন, খুব দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে না নিয়ে গেলে তাঁর জীবনহানির আশঙ্কাও ছিল |

প্রাণের সঙ্গে সঙ্গে সন্দীপের চাকরিও বাঁচিয়ে সুজয় ধরা দিয়েছেন ত্রাতার ভূমিকায় | শনিবার সেই কর্তব্যরত সুজয়কে খাদ্য সরবরাহ ওই অ্যাপ সংস্থার তরফে নিমতায় পুরস্কৃত করা হল |

সংস্থার তরফে বলা হয়, আজ সুজয়রা আছেন বলেই পুরুষদের পাশাপাশি মহিলারাও এই কাজে যোগ দিচ্ছেন | এটাই তো সমাজের কাছে অনেক কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিচ্ছে |

হঠাৎ রাস্তার মধ্যে এই ভাবে সম্মানিত হয়ে চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি সুজয় | বলেন, ‘‘ আমরা তো মানুষের জন্যই সকাল-বিকেল, রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে দাঁড়িয়ে ডিউটি করি ৷ কিন্তু মানুষের অসচেতনতাই আজ আমাদের জীবনে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে |’’ পুরস্কারের জন্য নয়, বাবা মায়ের শিক্ষাই তাঁকে এই কাজগুলো করতে সাহস যোগায় | মনে করেন পুলিশকর্মী সুজয় বিশ্বাস ৷

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: