corona virus btn
corona virus btn
Loading

নজিরবিহীন! করোনা মোকাবিলায় বেতনের ৩০ শতাংশ অর্থ দিলেন বিশেষভাবে সক্ষম মহিলা কর্মচারী

নজিরবিহীন! করোনা মোকাবিলায় বেতনের ৩০ শতাংশ অর্থ দিলেন বিশেষভাবে সক্ষম মহিলা কর্মচারী

বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি কলেজ সেন্টারের টেকনিক্যাল স্টাফ লীনা দাস।

  • Share this:

#ঝাড়গ্রামঃ রাজ্যে করোনা মোকাবিলায় নজিরবিহীনভাবে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে নিজের মাসিক বেতনের ৩০% অর্থ অনুদান দিলেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষভাবে সক্ষম এক অস্থায়ী কর্মচারী। বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি কলেজ সেন্টারের টেকনিক্যাল স্টাফ লীনা দাস মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে আর্থিক অনুদানের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়কে মোট ৩ হাজার টাকা দিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী লীনা দাস দীর্ঘদিন ধরেই অস্থায়ী কর্মচারী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। অস্থায়ী কর্মচারী হওয়ায় মাসিক বেতন ১০ হাজারের কাছাকাছি বলেই জানা গেছে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে। বেতনের ৩০% দেওয়াতে নিজেকে গর্বিত বলে মনে করছেন পশ্চিম মেদিনীপুরের লীনা দাস। তিনি বলেন, "এখন নিজের জন্য নয়, সময় এসেছে সবার জন্য চিন্তা করার। আমার মনে হয়েছে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় এই সামান্য আর্থিক অনুদান রাজ্যের সামান্য হলেও কাজে লাগবেই। আমি এই অনুদান দিতে পেরে খুবই খুশি।" লীনা দাসের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন উপাচার্য রঞ্জন চক্রবর্তী। তিনি বলেন, "ওনার তরফে এই আর্থিক অনুদান আমাদের কাছে অমূল্য। এই উদ্যোগ গোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে প্রশংসনীয় হয়ে থাকবে।"

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। বর্তমানে দেশজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। পাল্লা দিয়ে এ রাজ্যেও ক্রমশই বাড়ছে করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিমধ্যেই পরিসংখ্যান বলছে এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়েছে। চিকিৎসকদের আশঙ্কা এই সংখ্যা আরও বাড়বে বই কমবে না। যদিও ইতিমধ্যেই করোনাতে আক্রান্ত হয়ে তিনজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। করোনা ভাইরাস মোকাবিলার জন্য ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 'মুখ্যমন্ত্রী আপৎকালীন ত্রাণ তহবিল' গঠন করেছেন। সম্প্রতি রাজ্য শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল  আর্থিক অনুদান দেওয়ার জন্য রাজ্যের শিক্ষক-শিক্ষিকা অধ্যাপক অধিকারীকদের কাছে আবেদন রেখেছেন। সেই আবেদনে সাড়া পড়েছে ব্যাপক হারে।

বৃহস্পতিবারই পশ্চিম মেদিনীপুরের বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে নিজস্ব তহবিল থেকেই ৩০ লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান দিয়েছে। যা এখনও পর্যন্ত রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরিখে সবচেয়ে বেশি। তারই পাশাপাশি শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিশেষভাবে সক্ষম অস্থায়ী মহিলা কর্মচারী বেতনের ৩০% অর্থ মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান দিয়েছেন। যা কার্যত বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে অনেকটা ব্যতিক্রমী বলেই বলছেন প্রাক্তনীরা শুরু করে অধ্যাপকরা।

উপাচার্য রঞ্জন চক্রবর্তী লীনা দাসের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, "বিশ্ববিদ্যালয় সকল স্তর থেকেই আর্থিক অনুদানের ভাল সাড়া আমরা পেয়েছি। আশা করছি খুব শীঘ্রই আরো দশ লক্ষ টাকা আমরা মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে তুলে দিতে পারব।"

SOMRAJ BANDOPADHYAY

Published by: Shubhagata Dey
First published: April 3, 2020, 5:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर