সবুজ ঝড় সিঙ্গুরেও, সবক’টি গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিল তৃণমূল

সবুজ ঝড় সিঙ্গুরেও, সবক’টি গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিল তৃণমূল

চলছে বিজয়োল্লাস ৷ নিজস্ব চিত্র ৷

কিছুটা প্রত্যাশিত হয়তো ছিলই ৷ অনুমান সঠিক করে আবারও সবুজ ঝড় উঠল সিঙ্গুরে ৷ ১৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রতিটিই এল শাসক দলের দখলে ৷ তারপরেও রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের চোখ ছিল সিঙ্গুরের উপর ৷

  • Share this:

    #সিঙ্গুর: কিছুটা প্রত্যাশিত হয়তো ছিলই ৷ অনুমান সঠিক করে আবারও সবুজ ঝড় উঠল সিঙ্গুরে ৷ ১৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রতিটিই এল শাসক দলের দখলে ৷ তারপরেও রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের চোখ ছিল সিঙ্গুরের উপর ৷ এদিন ভোটগণনা শুরু হতেই কার্যত সবুজেরই জয়জয়কার দেখা যায় সর্বত্র ৷ প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সবক’টি আসনও দখলে নেয় শাসক দল ৷ এবছর পঞ্চায়েতে টিকিট দেওয়া নিয়ে প্রথম থেকেই সিঙ্গুরের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ছিল উত্তপ্ত ৷ তাপসী মালিক খুনে অভিযুক্ত দেবু মালিকের ভাইপো বেচারাম মান্নার ঘনিষ্ঠ রথীন মালিককে টিকিট দেওয়ায় গ্রামের একটা অংশ নাম লিখেছিল বিক্ষুদ্ধদের তালিকায় ৷ উপরতলার এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি সিঙ্গুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের অনুগামীরাও ৷ অন্যদিকে, তৃণমূলের হয়ে টিকিট না পেয়ে ৪ নম্বর জেলা পরিষদ আসনে নির্দল হয়ে দাঁড়িয়েছেন তাপসী মালিকের বাবা মনোরঞ্জন মালিক ৷

    আরও পড়ুন: Bengal Panchayat Election Results 2018 LIVE: পশ্চিম বর্ধমান জেলা পরিষদেরও দখল নিল তৃণমূল

    ২০০৬ সালে এই সিঙ্গুরের মাটিতেই নৃশংসভাবে খুন হয়েছিলেন তাপসী মালিক ৷ তারপর থেকে তাপসীর মুখ হয়ে উঠেছে সিঙ্গুরের পালাবদলের আন্দোলনের অন্যতম হাতিয়ার ৷ তাপসী মালিক হত্যার নেপথ্যে যাদের নাম উঠে আসে, তাদের মধ্যে এক জন দেবু মালিক। সেই দেবু মালিকের আত্মীয়কে টিকিট দেওয়ায় তাই স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ সিঙ্গুরের একাংশ ৷ তবে এবছর সিঙ্গুরে ভোট হয়েছে শান্তিপূর্ণভাবেই ৷ দু’দলের মনোমালিন্য থাকলেও কোনও হিংসার খবর পাওয়া যায়নি ৷ গ্রাম পঞ্চায়েতে সাফল্যের সঙ্গে ঘাসফুল পুঁতে দিতে পারলেও এখনও বাকি পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের ফলাফল ৷ কোন দিকে যাবেন সিঙ্গুরের মানুষ ৷ তা জানতে এখনও কিছু সময়ের অপেক্ষা ৷

    আরও পড়ুন: জেলের গারদও আটকাতে পারল না, ভাঙড়ে জয় আরাবুল, হাকিমুলের

    First published: