ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত হাওড়ার গ্রাম থেকে শহর

  • Last Updated :
  • Share this:

    #হাওড়া: ভোট শেষ হতে না হতেই ২৪ পরগণার মতো উত্তপ্ত হাওড়ার গ্রাম থেকে শহর। কোথাও সিপিএম কর্মীদের বাড়ি ভাঙচুর করা হল আবার কোথাও তৃণমূল সমর্থকের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হল। কোথাও আবার হামলায়  কংগ্রেস সমর্থকের বাবার মাথা ফাটল । শাসক থেকে বিরোধী দল  অভিযুক্ত সকলেই ৷ হিংসা থেকে রেহাই পায়নি দশ বছরের বালিকা থেকে সত্তর বছরের বৃদ্ধ।

    সোমবার চতুর্থ দফার ভোটে বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনায় দিনভর উত্তপ্ত ছিল হাওড়া।

    সাঁকরাইল সাঁকরাইলের দেওয়ানপাড়ায় সিপিএম এজেন্ট মহসিন দেওয়ানের বাড়ি ভাঙচুর এবং মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে । মহসিনের ১০ বছরের এক খুদে আত্মীয়ার ওপরও হামলা হয় বলে অভিযোগ। সিপিএম প্রার্থী সমীর মালিকের বুথ এজেন্ট হওয়ার জন্যই তাঁর ওপর হামলা বলে অভিযোগ মহসিনের। সাঁকরাইল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

    হাওড়া উত্তর 

    বামুনগাছিতে সিপিএম সমর্থক উৎপল দত্তের বাড়িতে হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। তাঁর গাড়ি, বাইক ভাঙচুর করা হয়। সোমবার অরবিন্দ স্কুলে জোটের হয়ে ভোটের কাজ করেছিলেন তিনি। ঘটনায় আতঙ্কিত পরিবার লিলুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

    আমতাআমতার বিনোলা গ্রামে তৃণমূলের এজেন্ট অন্নদাশঙ্কর সাঁতরার বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনায় আহত অন্নদাশঙ্কর এবং তাঁর মা । তাঁর মায়ের হাত ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। আমতা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

    উদয়নারায়ণপুর

    উদয়নারায়ণপুরের খোসালপুরে সিপিএম সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ভোটের পর থেকেই গ্রামছাড়া সমর্থকরা। তাঁদেরর পরিবারের সদস্যদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ । ঘটনার পর পুরুষশূন্য গ্রাম।

    পাঁচলাপাঁচলার বেলডুবি গ্রামে সিপিএম সমর্থক নাসির মল্লিককে মারধর ও বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। তাঁকে এলাকা ছাড়া করার হুমকি ।

    এছাড়াও শ্যামপুর, বাগনানে ছড়িয়েছে ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস। শ্যামপুরে কংগ্রেস প্রার্থীর এজেন্টের বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে । হামলায় মাথা ফেটেছে এজেন্টের সত্তর বছর বয়সী বাবার। ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে শ্যামপুর থানায় । বাগনানের পানিত্রাসে তৃণমূল সমর্থকের বাড়িতে আগুন লাগানোর অভিযোগ সিপিএম ও কংগ্রেসের বিরুদ্ধে । বাগনান ও উলুবেড়িয়ায় কংগ্রেস সমর্থক এক গ্রামীণ চিকিৎসক ও সোনার ব্যবসায়ীকে চেম্বার ও দোকান খুলতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সব ক্ষেত্রেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। প্রত্যেক এলাকায় পুলিশি টহলদারি বাড়ানো হয়েছে। বসানো হয়েছে পুলিশি পিকেট।

    First published:

    Tags: After Election Violence, Howrah, Violence, West Bengal Assembly Election 2016