corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিবাহিত মেয়ের আবার বিয়ে দিল পরিবার, শ্বশুরবাড়ির সামনে ধরনায় জামাই

বিবাহিত মেয়ের আবার বিয়ে দিল পরিবার, শ্বশুরবাড়ির সামনে ধরনায় জামাই
photo: Representational Image
  • Share this:
#মেদিনীপুর: আট বছরের প্রেমের পর যুবক-যুবতি সাত পাকে বাঁধা পড়েছিল স্বেচ্ছায়৷ সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই মেয়ের আবার অন্যত্র বিয়ে দিলো মেয়ের বাড়ির লোক। প্রতিবাদে মেয়ের বাড়ির সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে যুবক।
মেদিনীপুর শহরের এক নম্বর ওয়ার্ড তোলাপাড়ার বাসিন্দা রাজা দাস এর সঙ্গে৷ প্রতিবেশী যুবতী দোয়েল মণ্ডলের সঙ্গে দীর্ঘ আট বছরের প্রেমের সম্পর্ক। রাজার পরিবার এই সম্পর্ক মেনে নিলেও দোয়েলের পরিবার এই সম্পর্ক মেনে নেয়নি। শেষ পর্যন্ত গত শুক্রবার বাড়ি থেকে বেরিয়ে রাজা কে ফোন করে ডেকে দোয়েল আর রাজা এক মন্দিরে গিয়ে সাত পাকে বাঁধা পড়ে। এই খবর পাওয়ার পর মেয়ের বাড়ির লোক মেয়েকে বাড়িতে ফোন করে ডাকে রাজা কে সঙ্গে নিয়ে বাড়িতে পৌঁছে যাই দোয়েল।
এরপর বাড়ির লোক বলে রাজার সঙ্গে সম্পর্ক তারা মেনে নিচ্ছেন না এবং রাজার সঙ্গে দোয়েলকে আর বেরোতেও দেবেন না। এমনকি, রাজাকে মেয়ের বাড়ির লোকজন মারধর করে তাদের বাড়ি থেকে বের করে দেয় বলে অভিযোগ রাজার। শুধু তাই নয়, গতকাল বুধবার অন্যত্র দোয়েলের বিয়ে দেয় বাড়ির লোক।এই খবর পাওয়ার সাথে সাথেই রাজা বৃহস্পতিবার দুপুরে দোয়েলের বাড়ির সামনে ধরনায় বসে। মুহূর্তেই ভিড় জমে যায় দোয়েলের বাড়ির সামনে।
পাড়া-প্রতিবেশী প্রত্যেক এই রাজার পরিবারের পাশে দাড়িয়েছে। এমনকি স্থানীয় কাউন্সিলরও বলেন মেয়ের বাড়ির লোক অন্যায় করেছে। ঘটনার খবর পেয়ে মেদিনীপুর কোতোয়ালী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ধরনায় বসে থাকা রাজাকে কোনমতে বুঝিয়ে পুলিশ বাড়ি পাঠায়। পুলিশের আশ্বাসে আজকের মত রাজা এবং রাজার পরিবার মেয়ের বাড়ি থেকে ফিরে গেল তাদের হুমকি যদি দোয়েলকে ফিরিয়ে না দেওয়া হয় আগামিকাল থেকে তারা আবার ধর্নায় বসবেন মেয়ের বাড়ির সামনে।
First published: July 11, 2019, 9:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर