West Bengal Election Results 2021: জিতলেন তিনি-দলের ব্যাপক হার, 'খাসতালুক' হলদিয়াতেও বিক্ষোভের মুখে শুভেন্দু!

জিতেও জয়ী নন শুভেন্দু

সারাদিন হলদিয়াতেই ছিলেন শুভেন্দু। সন্ধ্যায় বেরোনো মাত্রই তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। শুনতে হয় 'গো ব্যাক' স্লোগানও।

  • Share this:

    নন্দীগ্রাম: ভোটের দিনের সেই উত্তেজনা ফিরে এল গণনার দিনেও। বাস্তবেই গোটা নির্বাচন পর্ব মিলে দেশের নজরে রইল নন্দীগ্রাম (Nandigram)। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বনাম শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) মহাযুদ্ধ। গোটা নির্বাচন পর্বের মতো ভোটগণনার দিনও টানটান নাটক চলল নন্দীগ্রামকে ঘিরে। যা রাত পর্যন্তও চলছে। অবশ্য, নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, মহানাটকের পর শেষমেশ নন্দীগ্রামে জয় এসেছে শুভেন্দু অধিকারীর পক্ষেই। জয় ঘোষণার পরই টুইটারে নন্দীগ্রামের বিজয়ী প্রার্থী শুভেন্দু লেখেন, 'আমার উপর বিশ্বাস ও ভরসা রাখার জন্য নন্দীগ্রামের প্রতিটি মানুষকে অসংখ্য ধন্যবাদ। এই জয় নন্দীগ্রামে প্রতিটি মানুষের জয়। আগামী দিনে নন্দীগ্রামের উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করাই আমার সংকল্প।' সারাদিন হলদিয়াতেই ছিলেন শুভেন্দু। সন্ধ্যায় বেরোনো মাত্রই তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। শুনতে হয় 'গো ব্যাক' স্লোগানও।

    টানটান উত্তেজনার পর নন্দীগ্রামে জয়ী হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমন খবর ছড়িয়ে পড়েছিল বিকেলে। কিন্তু কিছুক্ষণ বাদেই জানা যায়, নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। এরপরই নন্দীগ্রামে নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তোলেন মমতা। সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলনেত্রী বলেন, 'কারচুপি হয়েছে নন্দীগ্রামে, আমরা কোর্টে যাব।'

    মমতা আরও বলেন, 'আমরা দুশোর বেশি আসনে জিতেছি। একটা আসনে হারা জেতা বড় ব্যাপার নয়। ওরা একবার ঘোষণা করে দিয়েছিল যে আমি জিতে গিয়েছি। আর এখন বলছে হেরে গিয়েছি। কী করে এমন হয় জানি না। নন্দীগ্রামের মানুষ যে রায় দিয়েছেন তা মেনে নিচ্ছি। ওখানে ভোটগণনা যাতে রিভিউ করা হয়, সেই দাবিও জানাবে দল। দরকার হলে আদালতেও যাব।' এক বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমে মমতা বলেন, 'নন্দীগ্রামে পুনর্গণনার দাবি জানানো হবে। অনেক EVM-এ কারচুপিও হয়েছে। ২০২১ সালের নির্বাচনটা আমার কাছে চ্যালেঞ্জ ছিল।'

    আর এরপরই হলদিয়াতে বিক্ষোভের মুখে পড়েন শুভেন্দু। অপরদিকে, নন্দীগ্রামের ১৭ রাউন্ড গণনার পুনর্গণনাও চেয়েছে তৃণমূল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: