পূর্ব বর্ধমানে ৩০০ ছুঁতে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! আতঙ্কে শহরবাসী

পূর্ব বর্ধমান জেলায় গত বৃহস্পতিবার আক্রান্ত হয়েছিলেন ১০ জন। তার মধ্যে ৩ জন বর্ধমান পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় গত বৃহস্পতিবার আক্রান্ত হয়েছিলেন ১০ জন। তার মধ্যে ৩ জন বর্ধমান পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা।

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় গত ৪৮ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২২ জন করোনা আক্রান্ত হলেন। এই নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৯৯ জন। এখন বর্ধমানের করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮৮ জন। ২০৯ করোনা হাসপাতালে চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এই জেলায় এদিন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। লাফিয়ে লাফিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন জেলার বাসিন্দারা। করোনার সংক্রমণ রুখতে বাসিন্দাদের স্বাস্থ্যবিধি মানতে বাধ্য করা সহ বেশ কয়েকটি কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় গত বৃহস্পতিবার আক্রান্ত হয়েছিলেন ১০ জন। তার মধ্যে ৩ জন বর্ধমান পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা। এছাড়াও কাটোয়া পৌরসভা এলাকায় নতুন করে একজন আক্রান্ত হয়েছিলেন। দাঁইহাট পৌরসভা এলাকাতেও একজন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছিল। এছাড়া কাটোয়া এক নম্বর ব্লক, কেতুগ্রাম এক নম্বর ব্লক, মেমারি দু'নম্বর ব্লক, গলসি দু’নম্বর ব্লক ও খণ্ডঘোষ ব্লকের একজন আক্রান্তের হদিশ মিলেছিল।

গত ২৪ ঘণ্টায়য় নতুন করে ১২ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। তার মধ্যে বর্ধমান পুরসভা এলাকাতেই রয়েছে ৫ জন। কাটোয়া ও কালনা পুরসভা এলাকায় একজন করে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। বর্ধমান এক নম্বর ব্লকে নতুন করে দু’জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। রায়না এক নম্বর ব্লক, পূর্বস্থলী এক নম্বর ব্লক ও খন্ডঘোষ ব্লকে একজন করে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। বর্ধমান শহরে করোনার সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় প্রশাসনের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। করোনার সংক্রমণের বিষয়ে বাসিন্দাদের সচেতন করতে শহরে মাইকে প্রচার শুরু হয়েছে। বাইরে বের হলে সকলকে মাস্ক পরতে বাধ্য করা হচ্ছে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: