Home /News /south-bengal /
Bus Fare Hike|| কাজ হচ্ছে রেলের, এক ধাক্কায় বাড়ল বাসের ভাড়া! উত্তরবঙ্গগামী বাসের ভাড়া কত হল জানেন?

Bus Fare Hike|| কাজ হচ্ছে রেলের, এক ধাক্কায় বাড়ল বাসের ভাড়া! উত্তরবঙ্গগামী বাসের ভাড়া কত হল জানেন?

ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

North Bengal Bound buses huge fare hike: বেসরকারি ভলভো বাসের ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়া হল। তাও সেটা কার্যত দ্বিগুণ। কোথাও কোথাও আবার তার চাইতেও বেশি। যার ফলে সমস্যায় পড়েছে যাত্রীরা।

  • Share this:

#ব্যান্ডেল: ব্যান্ডেলে রেললাইনে কাজের জন্যে বন্ধ উত্তরবঙ্গগামী একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন। সেই সুযোগে বেসরকারি ভলভো বাসের ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়া হল। তাও সেটা কার্যত দ্বিগুণ। কোথাও কোথাও আবার তার চাইতেও বেশি। যার ফলে সমস্যায় পড়েছে যাত্রীরা। যদিও বাস সংস্থাগুলির অজুহাত একেক রকম। শ্যমলী পরিবহনের প্রতিনিধি অরুণ বসাক বলেন, 'ট্রেন বন্ধ হয়ে যাওয়াতে বাসের ওপরে চাপ বাড়ে। যাত্রীদের সেই পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার চ্যালেঞ্জ নিতে হয়েছে। বাস বাড়াতে হয়েছে। কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি যাওয়ার জন্য আবার যত যাত্রী পাওয়া যাচ্ছে শিলিগুড়ি থেকে ফেরার সময় যাত্রী সংখ্যা তুলনায় অনেক কম। ভাড়াও কম নেওয়া হয়েছে ওই পিঠে। ভাড়া না বাড়ালে তেলের দামও উঠবে না। সেই ক্ষেত্রে অনেকটা বাধ্য হয়েই এই পদক্ষেপ করতে হয়েছে। বিমানের ক্ষেত্রেও এরকমই হয়। তবে রবিবার ফের সেই ভাড়া স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে।'

পৌলমী পরিবহনের প্রতিনিধি বিকাশ সিং জানান, "বাসের ভাড়া একটু ওঠা নামা করে। চাহিদা বেশি তাই ভাড়াও বেড়েছে। তেলের যা দাম তাতে ভাড়া বাড়াতেই হত এবং সেই বাড়তি ভাড়া দুই পিঠেই বাড়ানো হয়েছে।" গ্রিন লাইনের পিঙ্কু দাস বলেন, "আমাদের সব বাসের টিকিটই বিক্রি হচ্ছে অনলাইনে। এখানে কারচুপির কোনও বিষয় নেই। ভাড়া বেড়েছে। তেলের দাম বেড়েছে। ভাড়া না বাড়ালে কী করে পোষাবে।" কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি বাস ভাড়া বেড়েছে হাজার টাকারও ওপরে। স্বাভাবিক অবস্থায় এই ভাড়া হাজার টাকার মধ্যে থাকলেও এই সময় তা বেড়ে আড়াই থেকে তিন হাজার টাকায় পৌঁছে গিয়েছে। শিলিগুড়ির ক্ষেত্রে সেটা দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা হয়েছে। আর এর ফলে সমস্যায় পড়েছেন যাত্রীরা।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিকের ফলপ্রকাশ ৩ জুন, কখন জানা যাবে ওয়েবসাইটে? দেখুন...

কর্মসূত্রে কলকাতা থাকলেও মাসে একবার বাড়িতে যান শিলিগুড়ির বাসিন্দা তপন রায়। তিনি বলেন, "জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে। রোজগার বাড়ছে না। মরার উপর খাড়ার ঘায়ের মতো যদি এই রকম ভাবে ভাড়া বেড়ে যায় তাহলে আমরা যাই কোথায়। বাড়ি যাতায়াতে বাড়তি প্রায় তিন হাজার টাকা গুনতে হচ্ছে।" শিলিগুড়ির আরেক বাসিন্দা পুনম কুমারী বলেন, "যাত্রী ভাড়া বেড়েছে তো একটা বিষয়। তার সঙ্গে বেড়েছে সঙ্গে পণ্য পরিবহনের খরচ। একটা ছোট বাক্স নিয়ে যাবো যার ওজনও বেশি নয় সেটার জন্য তিনশো টাকা চাইছে।"

মালদহের যাত্রী তপতী সাহুর অভিযোগ, "পুরো পরিবার মিলে মালদহ যাচ্ছি। এখানে এসে শুনি ভাড়া বেশি দিতে হবে। সবার জন্য সেটা গুনতে গিয়ে দেখি আমাদের বাজেটের ছাড়িয়ে অনেকটাই বেশি। এসে পড়েছি যখন সেটা দিয়েই যেতে হবে। কিছু করার নেই।" গোপা সাহুর বক্তব্য, "ভাড়া বাড়ানোর আগে যদি বাস কোম্পানিগুলো জানিয়ে দেয় তাহলে আমাদের মতো সাধারণ মানুষের সুবিধা হয়। একে তো ট্রেনে যাওয়ার ইচ্ছা থাকলেও উপায় নেই। তার ওপর যদি হঠাৎ করে এই রকম পরিস্থিতিতে পড়তে হয় অসুবিধা হয়ে যায়।"

UJJAL ROY

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Bandel Station, Bus fare hike

পরবর্তী খবর