• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • NIKHIL BONGO PRATHOMIK SIKKHOK SOMITI ARRANGES CLASS FOR STUDENTS IN HEMTABAD SMJ

দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ, খুদে পড়ুয়াদের পড়াশোনামুখী করল নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি

করোনা আবহে ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঠন পাঠন বন্ধ।

করোনা আবহে ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঠন পাঠন বন্ধ।

  • Share this:

#কলকাতা:

হেমতাবাদ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের পড়াশুনোমুখী করতে এগিয়ে এল নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। আজ হেমতাবাদ ব্লকের ঠাকুরবাড়ি সংলগ্ন এলাকার একটি বাড়িতে এলাকার প্রায় ২৫ জন ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে পাঠদান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হল। শিক্ষকদের এই ভূমিকায় খুশী অবিভাবকরা। দীর্ঘদিন বাদে সহপাঠিদের কাছে পেয়ে খুশী ক্ষুদে পড়ুয়ারা।

করোনা আবহে ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঠন পাঠন বন্ধ। গ্রামীন এলাকায় দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর স্কুলের পঠন পাঠন বন্ধ। শিক্ষকরা পড়ুয়াদের যেটুকু পাঠদান দিয়েছিলেন চর্চা না থাকার কারনে সেই পাঠ ভুলতে বসেছে তারা। এই খুদে পড়ুয়াদের কথা ভেবে তাদের পাঠদানের জন্য এগিয়ে এল নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি উত্তর দিনাজপুর জেলা শাখা। আজ হেমতাবাদ সার্কেলের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে একটি পাঠদানের কর্মসূচীর শুভ সূচনা করলেন। করোনা বিধি মেনেই ছাত্রছাত্রী এই পাঠদান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত। বৃষ্টি মাথায় নিয়ে খুদে পড়ুয়ারা সেখানে এসে পাঠদানে অংশ নেয়। অধিকাংশ ছাত্রছাত্রীর মুখে মাস্ক ছিল। পড়াশুনার প্রতি আকর্ষণ বাড়াতে পড়ুয়াদের হাতে খাতা, পেনসিল, রঙ তুলে দেওয়া হয়। সমিতি নেতা গৌর চন্দ্র মন্ডল জানান, মিড ডে মিলের চাল, ডাল দিলেই পড়ুয়াদের শিক্ষায় মনোনিবেশ করানো যাবে না। নিয়মিত না হলেও সপ্তাহে একদিন জেলার সমস্ত এলাকায় এভাবে পাঠদান কর্মসূচী চালু হলে পড়ুয়াদের পড়াশুনা মুখী করা সম্ভব হবে। নাহলে প্রান্তিক এলাকার পড়ুয়ারা পড়াশুনা থেকে আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে। শিক্ষকদের এই ভূমিকায় খুশি অবিভাবকরা।

দিপালি পোদ্দার নামে অবিভাবক জানান, বাড়িতে পড়াশুনা করার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে ছেলেমেয়েরা। দীর্ঘদিন বাদে সহপাঠিদের কাছে পেয়ে পড়ুয়ারাও অনেকটাই উচ্ছ্বসিত। নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির জেলা সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু রায় চৌধুরী জানান, প্রাথমিক স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের পড়াশুনার সঙ্গে রাখার জন্যই এই ধরনের পাঠদান কর্মসূচি। জেলার সর্বত্র এই কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে। আজ হেমতাবাদ সার্কেল দিয়ে এই কর্মসূচীর সূচনা করা হল।

Published by:Suman Majumder
First published: