শান্তিনিকেতনের মঞ্চ থেকেই ২০২১ সালের মধ্যে ১০০ গ্রামকে স্বনির্ভর করার শপথ মোদির

নিজস্ব চিত্র

বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠান ঘিরে যেন চাঁদের হাট ৷ মোদি-মমতা-হাসিনা একমঞ্চে ৷ শুক্রবার শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর মঞ্চেই যেন নতুন ইতিহাসের সূচনা হল ৷

  • Share this:

    #বীরভূম: বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠান ঘিরে যেন চাঁদের হাট ৷ মোদি-মমতা-হাসিনা একমঞ্চে ৷ শুক্রবার শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর মঞ্চেই যেন নতুন ইতিহাসের সূচনা হল ৷ বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠানে পৌঁছেই আবেগবিহ্বল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ বলেন, ‘আমি এখানকার অতিথি নই ৷ আজ আচার্য হয়েই এসেছি আজ ৷’ বাংলাতেই সকলকে ‘প্রণাম’ জানিয়ে ভাষণ শুরু করলেন তিনি ৷

    শান্তিনিকেতনে পৌঁছেই সমস্ত সমস্যার কথা মন দিয়ে শোনেন প্রধানমন্ত্রী ৷ তারপরেই আম্রকুঞ্জে সমাবর্তনের মঞ্চে বক্তৃতা দিতে উঠেই সমস্ত সমস্যার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিলেন মোদি ৷ তিনি বলেন,

    আসার সময় পানীয় জলের সমস্যা শুনলাম ৷ পানীয় জলের কষ্টের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী ৷ পড়ুয়াদের কাছে আচার্য হিসেবে ক্ষমাপ্রার্থী ৷

    বিশ্বভারতীর সমাবর্তনে উপস্থিত থাকতে পেরে প্রধানমন্ত্রী গর্বিত ৷ বলেন,

    বিশ্বভারতী আমার কাছে মন্দিরের মত ৷ কবিগুরুর শান্তিনিকেতনে এসে গর্বিত আমি ৷ আজ এক ঐতিহাসিক মুহূর্ত ৷ এমন সমাবর্তন আর কোথায় হয় ! এখানে ডিগ্রি অর্জনই সব নয় ৷ ভাল মানুষ তৈরি হওয়াই লক্ষ্য ৷ প্রকৃতি কীভাবে শক্তি দিতে পারে ৷ তার প্রমাণ মেলে শান্তিনিকেতনে ৷

    একইসঙ্গে এই মঞ্চ ছেতেই ১০০ গ্রামকে স্বনির্ভর করার শপথ নিলেন প্রধানমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন,

    ২০২১-এ বিশ্বভারতীর ১০০ বছর পূর্তি হচ্ছে ৷ ২০২১-এর মধ্যে ১০০ গ্রামকে স্বনির্ভর ৷ ১০০ গ্রামকে স্বনির্ভর করার দায়িত্ব আপনাদের ৷

    এদিন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে ‘বিশ্ব-নাগরিক’ বলে আখ্যা দিলেন মোদি ৷ বলেন,

    বিশ্বকে এক ছাতার তলায় এনেছেন রবীন্দ্রনাথ ৷ সব জায়গাতেই রবীন্দ্রনাথের প্রসঙ্গ উঠে আসে ৷ আফগানিস্তানের সকলে কাবুলিওয়ালার গল্প জানেন ৷ সারা পৃথিবীতে পূজিত হন রবীন্দ্রনাথ ৷ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরই প্রথম বিশ্ব-নাগরিক ৷ অনেক স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বভারতী গড়েন রবীন্দ্রনাথ ৷ সেই স্বপ্নকে এগিয়ে নিয়ে চলা আপনাদের দায়িত্ব ৷

    First published: