Black Fungus আতঙ্ক, চোখের সমস্যা লুকিয়ে রাখলে বড় বিপদ, সচেতনতায় ​'চলমান চেম্বার

black fungus

আস্তে আস্তে বাড়ছে করোনার (Coronavirus) পাশাপাশি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও। ইতিমধ্যে বীরভূমে ব্লাক ফ্যাঙ্গাসে (Black Fungus death) আক্রান্ত হয়ে বীরভূম মৃত্যু হয়েছে ১ জনের।

  • Share this:

#বীরভূম: করোনার সাথে এবার বীরভূমে (birbhum coronavirus) নতুন আতঙ্কের নাম ব্ল্যাকফাঙ্গাস। করোনা সাথে সাথে বাড়ছে এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের আতঙ্ক । ধীরে ধীরে বাড়ছে ব্ল্যাকফাঙ্গাসের সংক্রমণও। ইতিমধ্যেই বীরভূমে এই ব্ল্যাকফাঙ্গাসে আক্রান্তের (black fungus attack) খবরও পাওয়া গিয়েছে। আস্তে আস্তে বাড়ছে করোনার পাশাপাশি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও। ইতিমধ্যে বীরভূমে ব্লাক ফ্যাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়ে বীরভূম মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। এই মিউকরমাইক্রোসিস (mucormycosis) সংক্রমিত হচ্ছে প্রধানত চোখেই৷ এই আতঙ্কের মধ্যেই অনেকেই আক্রান্ত (black fungus eye problem) হচ্ছেন বিভিন্ন রকম চোখের সমস্যায় এবং সেগুলি লুকিয়ে রাখছেন আতঙ্কিত হয়ে। এরকম জটিল পরিস্থিতে সিউড়ির উপহার এবং হেল্প ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে মানুষকে সচেতন এবং আতঙ্ক মুক্ত করতে সিউড়ি সংলগ্ন কুকুড্ডি গ্রামে মানুষের চক্ষু পরীক্ষার পাশাপাশি সচেতনতা শিবিরের আয়োজন করা হয়।

এই সংস্থার সদস্যদের পক্ষ থেকে জানানো হয় ইতিপূর্বেই কয়েক দিন আগেই তারা চালু করেছেন 'চলমান চেম্বার'। তারা এই 'চলমান চেম্বার'  (chaloman chamber)  মাধ্যমে আজকে হাজির হয়েছে এই গ্রামে চক্ষু পরীক্ষা করতে। এই ক্যাম্পে চোখের যাবতীয় রোগের চিকিৎসা, পাওয়ার পরীক্ষা,সুগার টেস্ট, প্রেসার মাপা, শরীরের তাপমাত্রা মাপা, অক্সিজেন মাপা সহ সমস্ত পরিষেবা দেওয়া হয়। ও সাথে সাথেই করোনা উপসর্গ থাকলে সেই রোগীকে  নিকটবর্তী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। এই ক্যাম্পে ৭০ জন মানুষের চক্ষু পরীক্ষা করা হয়।

একদিনের এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন সিউড়ি মহিলা থানার আই সি মিতা চক্রবর্তী সহ থানার অন্যান্য আধিকারিকরা। ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন চক্ষু বিশেষজ্ঞ সৌভিক দে। তিনি ক্যাম্প শেষে জানান, "ইতিমধ্যেই আমরা বেশ কিছু লুকিয়ে থাকা চোখের রোগ ধরেছি"। ওই গ্রামে থাকা কিছু করোনা রোগীকে সঠিক পরামর্শ দেওয়া হয়।  সেই সঙ্গে বেশ কিছু মানুষের চোখের সমস্যা ধরা পড়ায় তাদের চোখে চশমাও লেগেছে। সাথে সাথেই গ্রামের মানুষদের সচেতন করা হয়, মাস্ক ব্যবহার করতে বলা হয়। করোনা বিধি সম্পর্কে সকলের কাছে ধারণা স্পষ্ট করা হয়।

Published by:Pooja Basu
First published: