স্ত্রী হত্যার পাপ থেকে নিস্তার পেতে নিস্তারিনী কালীপুজো শুরু করেছিলেন রাজা হরিশচন্দ্র

স্ত্রী হত্যার পাপ থেকে নিস্তার পেতে নিস্তারিনী কালীপুজো শুরু করেছিলেন রাজা হরিশচন্দ্র
  • Share this:

#শেওড়াফুলি: স্ত্রী হত্যার পাপ থেকে মুক্তি পেতে কালীপুজো। সেখান থেকেই কালী এখানে নিস্তারিনী। শেওড়াফুলিতে নিস্তারিনী কালীপুজো ঘিরে অনেক গল্প।

রাজা হরিশচন্দ্র রায়। তাঁর তিন রানি। কিন্তু তাঁদের মধ্যে ঝগড়া প্রায় লেগেই থাকত। একদিন রেগে বড় রানি সর্বমঙ্গলাকে হত্যা করেন রাজা। অপরাধ বুঝতে পেরে শোকে, দুঃখে বর্ধমান থেকে পাড়ি দেন। রামসিতার মন্দিরে বিশ্রাম নেওয়ার সময় তাঁকে দেখতে পান মন্দিরের সেবাইত। তখন স্বপ্নাদেশ পান মন্দির প্রতিষ্ঠা করার। রামসীতা মন্দির থেকে শেওড়াফুলি যাওয়ার গঙ্গার জলে একটি পাথর ভেসে আসতে দেখেন। সেই পাথর থেকেই তৈরি হয়েছে নিস্তারিনী কালীর মূর্তি। পঞ্চমুণ্ডির উপর পিতলের আসনে রয়েছেন কালী।

এখানে নিস্তারিনী দেবীকে শিবপত্নী দক্ষিণকালিকা হিসেবে পুজো করা হয়। মন্দিরের গর্ভগৃহে সেবাইত ছাড়া কেউ ঢুকতে পারেন না। নিত্য পুজো ছাড়াও কালীপুজোর দিনে ছাগবলি, আরতি, তন্ত্রসাধনা ও যজ্ঞ হয়।

দেবী এখানে নিস্তারিনী নারী হিসেবে পূজিত হন। তাই পুজোর দিন বিবাহিত মহিলারা গঙ্গাস্নানের পর নতুন শাখা-পলা পরে পুজো দেন।

First published: 11:00:08 AM Oct 27, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर