আজ বিজয়া দশমী, ইচ্ছামতীতে চলছে দুই বাংলার প্রতিমা বিসর্জন

আজ বিজয়া দশমী, ইচ্ছামতীতে চলছে দুই বাংলার প্রতিমা বিসর্জন

আজ ঊমার বিদায় নেওয়ার পালা ৷ মঙ্গলবার প্রতিমা নিরঞ্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব ৷ উৎসব শেষে বিষাদের সুর ৷

  • Share this:

#উত্তর ২৪ পরগনা: আজ ঊমার বিদায় নেওয়ার পালা ৷ মঙ্গলবার প্রতিমা নিরঞ্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব ৷ উৎসব শেষে বিষাদের সুর ৷ মণ্ডপে-মণ্ডপে চলছে সিঁদুরখেলা, মিষ্টিমুখ ৷ চলছে শুভেচ্ছা বিনিময় ৷ এবার কৈলাসে ফিরবেন উমা। এরপর আবারও একবছরের অপেক্ষা ৷ বিশুদ্ধ পঞ্জিকামতে, দেবী দুর্গা এবার ঘোড়ায় চড়ে পৃথিবীতে এসেছেন এবং ঘোড়ায় চড়েই কৈলাসে ফিরবেন।

ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে ইছামতী নদীতে শুরু হয়েছে প্রতিমা বিসর্জন ৷ দুই বাংলারই প্রতিমা এখানে বিসর্জন দেওয়া হবে ৷ ২০১১ সাল পর্যন্ত এই দিনটি ছিল দুই বাংলার মানুষের মিলনের দিন ৷ এই দিনটিতে দুই বাংলার মানুষ একত্র হতে পারত কিন্তু ২০১১ সালে প্রচুর বাংলাদেশি নাগরিক এই সুযোগে ভারতে ঢুকে যায় ৷ তারা আর ফেরেনি ৷ তারপর থেকেই দুই বাংলার মানুষ এখন একসঙ্গে বিজয়ার উৎসবে মাততে পারেন না ৷ কড়া নিরাপত্তায় চলে একসঙ্গে দুই বাংলার প্রতিমা বিসর্জন ৷

এবারও টাকির সীমান্ত সহ ইছামতি নদীকে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলে হয়েছে ৷ এবার নিরাপত্তার জন্য একটি ভাসমান বি.এস.এফ ক্যাম্প তৈরি করা হয়েছে ৷ ইচ্ছামতী নদী জুড়ে চারটি বি.এস.এফ স্পিড বোট ও একটি পুলিশের স্পিড বোট ভাসান চলাকালীন ঘাটের নজরদারি চালাবে ৷ এছাড়াও ২০ টি বি.এস.এফের নৌকা ও পুলিশের দশটি নৌকা পুলিশ, পৌরসভা ও মোট চারটি সরকারি লঞ্চ মোতায়েন থাকবে ঘাট ও নদীর নজরদারিতে ৷ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের তিনটি দল ও এন.ডি.আর.এফের চারটি দল এবং দুটি মেডিকেল টিম তৈরি রাখা হয়েছে ৷

First published: 03:13:25 PM Oct 11, 2016
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर