শুধু প্রযুক্তি নয় রাগ সঙ্গীত নিয়েও বাঁচবে আইআইটি খড়গপুর

শুধু প্রযুক্তি নয় রাগ সঙ্গীত নিয়েও বাঁচবে আইআইটি খড়গপুর

File Photo

প্রযুক্তি দিয়ে এবার রাগ সঙ্গীতকে সঙ্গে নিয়ে বাঁচাবে আইআইটি খড়গপুর। শুধুই ছাত্রছাত্রীদের শেখানো নয়, প্রযুক্তির সাহায্যে দেশ, বিদেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে ভারতীয় মার্গ সঙ্গীত ।

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রযুক্তি দিয়ে এবার রাগ সঙ্গীতকে সঙ্গে নিয়ে বাঁচাবে আইআইটি খড়গপুর। শুধুই ছাত্রছাত্রীদের শেখানো নয়, প্রযুক্তির সাহায্যে দেশ, বিদেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে ভারতীয় মার্গ সঙ্গীত। পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সংস্থা শ্রুতিনন্দনের সঙ্গে এই নিয়ে চুক্তি হয়েছে আইআইটি খড়গপুরের।

    ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ব্যাকরণ বিশ্বব্যাপী ছড়াতে নয়া উদ্যোগ আইআইটি খড়গপুরের।  ভিনদেশীদের মধ্যেও যাতে মার্গ সঙ্গীতের নেশা ছড়িয়ে পড়ে, তার জন্য পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সংস্থা শ্রুতিনন্দনের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে আইআইটি খড়গপুরের। প্রযুক্তির মাধ্যমে ভারতীয় রাগ সঙ্গীতের সংরক্ষণ শুরু হয়েছে।  ভারতীয় রাগ সঙ্গীতের নানা বাঁক। সেই বাঁকের হদিশ পান না অনেকেই।  সুর, তাল , লয়ের নানা কৌশল সংরক্ষণ করে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের পুরোন শিক্ষা পদ্ধতিকে  প্রযুক্তির সাহায্যে বাঁচিয়ে রাখতে উদ্যোগী হয়েছে আইআইটি খড়গপুর।

    বিজ্ঞান ও ঐতিহ্যের মেলবন্ধনে তৈরি আইআইটির সন্ধি প্রকল্প। অজয় চক্রবর্তীর শ্রুতিনন্দনে গুরু-শিষ্য পরম্পরায় যেভাবে শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শেখানো হয়, সেই পদ্ধতি সংরক্ষণের কাজে নেমেছে আইআইটি। জানুয়ারি থেকে অডিও ভিজুয়াল ও লিখিতভাবে নথি সংরক্ষণের কাজ শুরু হয়েছে।

    গান গাইতে হবে। সঙ্গে গান বাঁচাতেও হবে। এমনটাই মনে করেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।  সেদিক থেকে আইআইটি খড়গপুরের উদ্যোগ ব্যতিক্রমী বলে মনে করেন শিল্পী।

    First published: