Home /News /south-bengal /
অশালীন প্রস্তাব প্রত্যাখান, প্রতিশোধে গৃহবধূর ভুয়ো পর্ণ ভিডিও বানাল অভিযুক্ত

অশালীন প্রস্তাব প্রত্যাখান, প্রতিশোধে গৃহবধূর ভুয়ো পর্ণ ভিডিও বানাল অভিযুক্ত

কুপ্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বদলা নিতে গৃহবধূর ভুয়ো পর্ণ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল ৷

  • Share this:

    #বারুইপুর: প্রতিবেশী যুবকদের অশালীন প্রস্তাবে রাজি না হওয়ার মাশুল গুনছেন এক মহিলা। গৃহবন্দি অবস্থায় দুই সন্তানকে নিয়ে দিন কাটাচ্ছেন দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বারুইপুরের ওই মহিলা। অশালীন ছবিতে মহিলার ছবি ব্যবহার করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ মহিলার পরিবারের। লালবাজার সাইবার ক্রাইম শাখায় অভিযোগ দায়ের করেছে পরিবার।

    কুপ্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বদলা নিতে গৃহবধূর ভুয়ো পর্ণ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল ৷ গৃহবধূর মুখের আদলে তৈরি পর্ণ ভিডিও এলাকায় ভাইরাল হয়ে পড়ায় হেনস্তার শিকার হচ্ছে গৃহবধূ ও তাঁর পরিবার ৷ ঘটনাটি ঘটেছে বারুইপুরে ৷

    ঘটনার সূত্রপাত গতবছর অক্টোবরের দিকে। নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরেই প্রতিবেশী কয়েকজন যুবক তাঁকে উত্যক্ত করছিল ৷ তাদের অশালীন প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তারাই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে সন্দেহ ৷ মহিলার ছবি সুপারইম্পোজ করে পর্ণভিডিও মডেলের শরীরে বসিয়ে এলাকার লোকের মোবাইলে ছড়িয়ে দেওয়া হয় ৷ পাড়ায় গুজব রটিয়ে দেওয়া হয় মহিলা পর্ণ ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ৷

    লোকলজ্জা ও টোন-টিটকিরিতে পাড়ায় মুখ দেখানো দায় হয়ে পড়ে মহিলা ও তাঁর পরিবারের ৷ এমনকি দুই সন্তানের স্কুল যাওয়াও বন্ধ ৷ বারুইপুর থানা এলাকার দুই যুবক অভিযুক্ত রাজু দলুই ও সেবাকর ভুঁইয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ অশালীন ভিডিওতে মহিলার ছবি ব্যবহার করে তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। যার ফলে চূড়ান্ত ভাবে সম্মানহানি হয়েছে ওই মহিলার। গ্রামে প্রায় একঘরে করে দেওয়া হয়েছে ওই পরিবারকে। বাধ্য হয়েই লালবাজার সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই মহিলার পরিবার।

    পুরো ঘটনাই যে তথ্যপ্রযুক্তির কারসাজি, তা ওই মহিলা বোঝাতে পেরেছেন তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে। প্রথমে সমালোচনা করলেও পরে ওই মহিলার পাশেই দাঁড়িয়েছেন তারা। বিষয়টি জানতে পারার পর সাইবার অপরাধ দমন শাখায় অভিযোগ দায়ের করেন তারা ৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ ৷ মানবাধিকার কমিশনেও অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ৷

    লালবাজার সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ দায়ের হলেও, এখনও গ্রেফতার করা হয়নি অভিযুক্তদের। অভিযোগের কপি পাঠানো হয়েছে মানবাধিকার কমিশনেও। অশালীন ছবি সোশাল মিডিয়ায় দেওয়ার ঘটনা আগেও ঘটেছে। সেক্ষেত্রে কড়া ব্যবস্থাও নিয়েছে পুলিশ।

    First published:

    Tags: Baruipur, Fake Porn Video, Sexual harrasment

    পরবর্তী খবর