• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Bengali tourists killed in Uttarakhand: উত্তরাখণ্ডে এবার দুর্ঘটনার কবলে বাঙালি পর্যটকদের দল, নিহত পাঁচ, আহত অন্তত ১৫

Bengali tourists killed in Uttarakhand: উত্তরাখণ্ডে এবার দুর্ঘটনার কবলে বাঙালি পর্যটকদের দল, নিহত পাঁচ, আহত অন্তত ১৫

উত্তরাখণ্ডে দুর্ঘটনাস্থলের ছবি৷

উত্তরাখণ্ডে দুর্ঘটনাস্থলের ছবি৷

দেহরাদুন (Dehradun) থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, পর্যটকদের দু'টি দল দু'টি বড় গাড়িতে ভাগ হয়ে মুন্সিয়ারি থেকে কৌশানির দিকে ফিরছিল (Five Bengali tourists from West Bengal killed in Uttarakhand)৷

  • Share this:

    #আসানসোল: উত্তরাখণ্ডে (Uttarakhand) ট্রেকিং করতে গিয়ে কয়েকদিন আগেই প্রাণ হারিয়েছেন এ রাজ্যের বেশ কয়েকজন বাসিন্দা৷ এবার উত্তরাখণ্ডেরই দেহরাদুনে বেড়াতে গিয়ে পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন পাঁচ জন বাঙালি পর্যটক (Bengali tourists killed in Uttarakhand)৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও দু' জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন৷ নিহত এবং আহতরা প্রত্যেকেই পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল এবং দুর্গাপুরেরে বাসিন্দা৷

    দেহরাদুন (Dehradun) থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, পর্যটকদের দু'টি দল দু'টি বড় গাড়িতে ভাগ হয়ে মুন্সিয়ারি থেকে কৌশানির দিকে ফিরছিল৷ সেই সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথম গাড়িটি রাস্তার ধারে উল্টে যায়৷ পিছনে থাকা দ্বিতীয় গাড়িটিও প্রথম গাড়িটিকে ধাক্কা মেরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদের মধ্যে পড়ে যায়৷

    আরও পড়ুন: নিমতৌড়িতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মৃত কলকাতা পুরসভার কো অর্ডিনেটর তিস্তা বিশ্বাস

    এই দুর্ঘটনার জেরেই পাঁচ পর্যটকের মৃত্যু হয়৷ মৃতরা হলেন কিশোর ঘটক (৫৯), সালোনি চক্রবর্তী (৫৫), সুব্রত ভট্টাচার্য (৬১), তাঁর স্ত্রী রুনা ভট্টাচার্য (৫৬) এবং চন্দন খাঁ (৬৫)৷ নিহতরা প্রত্যেকই রানিগঞ্জ, আসানসোল এবং দুর্গাপুরের বাসিন্দা৷

    জানা গিয়েছে দুর্ঘটনায় অন্তত ১৭ জন পর্যটক আহত হন৷ তাঁদের মধ্যে দু' জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের স্থানীয় জেলা হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা করা হচ্ছে৷ বাকিদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করা হয়৷ আহতদের মধ্যেও অধিকাংশই আসানসোলেরই বাসিন্দা বলে খবর৷

    দুর্ঘটনার খবর এসে পৌঁছনোর পর থেকেই আসানসোল, রানিগঞ্জ এবং দুর্গাপুরে মৃত ও আহতদের পরিবারের বাকি সদস্য ও প্রতিবেশীরা উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন৷ আহতদের দ্রুত ফিরিয়ে আনা এবং নিহতদের দেহ ফেরাতে স্থানীয় পুলিশ এবং প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা৷

    Deepak Sharma

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: