Duare Ration: দিনের সবচেয়ে বড় খবর, আজ থেকে এই জেলায় দুয়ারে রেশন!

আজ থেকে বীরভূমে পাইলট প্রজেক্ট দুয়ারে রেশন।

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প দুয়ারে রেশন (Duare Ration)। দুয়ারে সরকারের (Duare Sarkar) কাজ শেষ করে বুধবার থেকে ব্লকে ব্লকে কর্মীরা ডিলারদের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেবে গ্রাহকদের।

  • Share this:

#সিউড়ি: মাইকে প্রচার এবার দুয়ারে রেশনের (Duare Ration)। কোন এলাকায় কবে রেশন দেওয়া হবে তা ডিলার নিজের দোকানে টাঙিয়ে রাখার নির্দেশ দিলেন রাজ্যের খাদ্য প্রতিমন্ত্রী জ্যোতস্না মাড্ডি। সোমবার জেলার দুয়ারে রেশনের (Duare Ration in Birbhum) প্রস্তুতি দেখতে আসেন মন্ত্রী। সিউড়িতে জেলাশাসক, জেলা আধিকারিক ও খাদ্য দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। জোৎস্না মাড্ডি জানান, "জেলার ৯৬৩ টি রেশন ডিলারের মধ্যে ১৫ শতাংশ ডিলার অর্থাৎ ১৪৫ টি ডিলারকে বেছে নেওয়া হয়েছে। (আজ) ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে 'পাইলট' প্রকল্প হিসাবে ডিলাররা গ্রাহকের বাড়িতে গিয়ে গিয়ে রেশন দিয়ে আসবে।"

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প দুয়ারে রেশন দুয়ারে সরকারের (Duare Sarkar) কাজ শেষ করে  বুধবার থেকে  ব্লকে ব্লকে কর্মীরা ডিলারদের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেবে গ্রাহকদের। সে জন্য ইতিমধ্যে ব্লকে পুরসভায় ডিলারদের সঙ্গে আধিকারিকদের বৈঠক হয়েছে। যদিও ডিলাররা বেশ কিছু ক্ষেত্রে দুয়ারে রেশন পৌঁছে দেওয়ার অসুবিধার কথা বলেছে। সরকার বাড়িতে রেশন পৌঁছে দিতে যে খরচ দিচ্ছে, বাস্তবে খরচ তার থেকে বেশি হবে।গ্রামীন এলাকায় বা শহরে অনেক গলিতে রেশনের গাড়ি ঢুকবে না,যদি নির্দিষ্ট এলাকায় ইন্টারনেটের লিঙ্ক না থাকে তাহলে কী হবে?

আরও পড়ুন-'মানুষ ক্ষমা করবে না', বিপ্লব দেব সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন সুদীপ রায় বর্মন

খাদ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, সে জন্য সপ্তাহের চারদিন বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেওয়া হবে, যাদের অসুবিধা থাকবে, তাদের জন্য সপ্তাহের দু-দিন ডিলারের দোকান খোলা থাকবে সেখান থেকে গ্রাহক রেশন তুলতে পারবে।

রেশন ডিলার এসোসিয়েশনের জেলা সম্পাদক অলক ঠাকুর জানান, "আমরা কবে কোথায় রেশন দিতে যাব তা সংশ্লিষ্ট এলাকার জনপ্রতিনিধি থেকে সব সরকারি প্রতিষ্ঠানে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমরাও রেশন দিতে আগ্রহী। ১৫ দিন পরে ফের পাইলট নিয়ে পর্যালচনা করা যাবে।"

মন্ত্রী জ্যোতস্না মাড্ডি আরো জানান, "আগে দুয়ারে রেশন পৌঁছানোর জন্য কেজি প্রতি ৭৫ পয়সা করে বরাদ্দ করেছিল সরকার।ডিলারদের কথা ভেবে খাদ্য দফতরের তরফে আরও ৭৫ পয়সা করে বাড়তি খরচ দেওয়ার কথা জানান হয়েছে।"

জেলাশাসক বিধান রায় জানান, "আমাদের জেলায় জঙ্গল মহল বিশেষ রেশন সমেত অনান্য সব ধরনের সুবিধার রেশন পান গ্রাহকরা। রাজ্য সরকার তাদের তা নিয়মিত দিয়ে যাচ্ছে। এবার গ্রাহকদের দুয়ারে রেশন পৌঁছাতে মুখ্যমন্ত্রী যে ঘোষনা করেছেন তার বাস্তবায়নের জন্য ডিলারদের সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করবে জেলা প্রশাসন।কিন্তু পাইলট এই পরিকল্পনাকে বাস্তবে রুপদান করতেই হবে।"

-Supratim Das

Published by:Arka Deb
First published: