Home /News /south-bengal /
Birbhum Toto Colour|| সিউড়িতে এ বার চলবে রঙ ভিত্তিক টোটো! কেন এমন সিদ্ধান্ত প্রশাসনের?

Birbhum Toto Colour|| সিউড়িতে এ বার চলবে রঙ ভিত্তিক টোটো! কেন এমন সিদ্ধান্ত প্রশাসনের?

Different Colour toto will run in different days: গড়ে ৩৬০০ টোটো চলে সিউড়িতে। যার মধ্যে থেকে বেশির ভাগ টোটোই আসে শহর লাগোয়া গ্রাম থেকে। তাই এ বার থেকে নিজের শহরের টোটোদের নম্বর প্লেট দেবে পুরসভা।

  • Share this:

#সিউড়ি: বীরভূমের সদর শহর সিউড়িতে চলবে এ বার নীল, হলুদ টোটো। যানজট রুখতেই এমন সিদ্ধান্ত জেলা প্রশাসনের। টোটোর অত্যাচারে নাজেহাল সিউড়িবাসী। কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার পথে বেহাল অবস্থা শহরবাসী থেকে সদরে আসা মানুষের। তাই টোটো নিয়ন্ত্রণে জেলা পরিষদের সভাধিপতির দফতরে বৈঠক হয় বুধবার। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সিউড়ি বিধানসভার বিধায়ক বিকাশ রায় চৌধুরী, ডিএসপি ডিএনটি অয়ন সাধু, সিউড়ি পুরসভার পুরপ্রধান প্রণব কর, আইসি মহম্মদ আলি, উপ পুর প্রধান বিদ্যাসাগর সাউ-সহ ট্রাফিক পুলিশের কর্তারা।

গড়ে ৩৬০০ টোটো চলে সিউড়িতে। যার মধ্যে থেকে বেশির ভাগ টোটোই আসে শহর লাগোয়া গ্রাম থেকে। তাই এ বার থেকে নিজের শহরের টোটোদের নম্বর প্লেট দেবে পুরসভা। সেখানে জোড়া নম্বরের টোটোর রঙ হবে হলুদ ও বিজোড় হবে নীল। সপ্তাহের একদিন হলুদ ও একদিন নীল টোটো চলবে শহরে। এ ছাড়াও এ দিনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, সিউড়ির নেতাজি বাসস্ট্যান্ড থেকে বেসরকারি বাস বেরিয়ে যাত্রী তুলতে তুলতে যায়, তা বন্ধ করতে হবে।

আরও পড়ুন: জেলায় জেলায় আবহাওয়ার বদল শুরু! সন্ধ্যায় ধেয়ে আসবে কালবৈশাখী? জানুন Latest updates...

এ ছাড়াও প্রশাসন ভবনের কাছে বাস স্টপেজকে পিছিয়ে আগে পেট্রোলপামের কাছে করতে হবে। ষষ্ঠীতলার কাছে স্টপেজ এগিয়ে করতে হবে তৃণমূল ভবনের সামনে। শহরে ঢোকার মুখেই চেক পোস্টে থাকবে সিভিক ভলেন্টিয়ার, সেখানেই গ্রামের টোটো শহরে ঢুকবে না। তবে গ্রামের টোটো শহরে না ঢুকলেও পার্শ্ববর্তী এলাকা হিসাবে কুলেড়া, মনপুর, কড়িধ্যার টোটো চালককে ঢুকতে দেওয়া হবে শহরে। জাতীয় সড়ক ঢোকার সব রাস্তায় যেমন কুলেড়া, তিলপাড়া, হাটজন বাজারে থাকবে চেক-পোস্ট। তবে এরপরেও স্ট্যান্ড বাড়াতে বেণীমাধব স্কুলের সামনে, সদর বাংলোর সামনে আরও বড়ো দুটি টোটো স্ট্যান্ড করার পরিকল্পনা করেছে প্রশাসন। শহরবাসীর বক্তব্য এই পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়িত হোক।

আরও পড়ুন: রাজ্যের ২ মন্ত্রীকে বিঁধে সিপিআইএমের নতুন প্যারোডি, গান বাঁধলেন রাহুল-নীলাব্জ

পুরপ্রধান প্রণব কর বলেন, "মাইকিং করে সবাইকে আমাদের সিদ্ধান্ত শহরে জানিয়ে দেওয়া হবে। তারপরই নিয়ন্ত্রণ শুরু হবে।" পুরপ্রধান অঞ্জন কর বলেন, " আমার আশা করছি মাস খানেকের মধ্যে এই পদ্ধতি চালু করে দিতে পারব।" আইএনটিটিইউসি-র টোটো ইউনিয়নের জেলা সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বলেন বলেন, "শহর আমাদের। তাদের বাঁচাতে হবে। শহরে ২৮টি টোটো স্ট্যান্ড রয়েছে, তা বাড়িয়ে ৩৫ করতে হবে। আমরা প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে সম্পূর্ণ সমর্থন করি।"

Supratim Das

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Birbhum

পরবর্তী খবর