ভ্রাম্যমাণ বাসেই হবে হাতেখড়ি! ধনেখালির আইসিডিএস সেন্টার হতে পারে দেশের রোল মডেল

এই সেই আইসিডিএস-এর বাস।

গত বছর এগারো লক্ষ টাকায় তৈরি হয়েছে এই সেন্টার। অন্য সমস্ত সেন্টারের থেকে এই সেন্টারের আকর্ষণ আলাদা হবার কারণ একটি বাস।

  • Share this:

#ধনেখালি: বহু বছর ধরেই বিভিন্ন জেলায় কমেছে স্কুলছুট পড়ুয়াদের সংখ্যা, কখনও মিড-মিলের বাজিমাত, কখনও ICDS সেন্টার। জীবনের শুরুতেই স্কুলের প্রতি আকর্ষণ বাড়াতে এবার ধনেখালিতে নতুন ভাবনা ধনেখালির দশঘরা ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাতপুরের অঙ্গনওয়ারি সেন্টারে । গত এক বছর ধরে সেন্টারের প্রতি শিশুদের আকর্ষণ শুধু নয়, পাঠ নেবার চাহিদা বেড়েছে অনেকগুণ। সরকার প্রকল্পের খরচে তৈরি হয়েছে এই সেন্টার।  গত বছর এগারো লক্ষ টাকায় তৈরি হয়েছে এই সেন্টার।  অন্য সমস্ত সেন্টারের থেকে এই সেন্টারের আকর্ষণ আলাদা হবার কারণ একটি বাস।

দশঘরার মাদপুরের মাঠে একটি বাস দেখলে অনেকের মনে প্রশ্ন উঠতেই পারে কেন এই বাস হয়তো রাখা হয়েছে মাঠের মাঝখানে!  আদতে ICDS সেন্টারের প্রতি ক্ষুদে পড়ুয়াদের আকর্ষণ ও চাহিদা বাড়াতে তৈরি হয়েছে একটি আস্ত বাস। দেখে মনেই হতে পারে কোনও বেসরকারি সংস্থার বাস হয়তো বেরিয়েছে তীর্থস্থান ঘুরতে। ১২ মিটার লম্বা ও ৪ মিটার চওড়া জায়গায় প্রায় ৩৫ জনের আসনের ব্যাবস্থা করা হয়েছে। আদতে বাসের মধ্যে প্রবেশ করলেই দেখা মিলবে চক, ডাস্টার ও বোর্ডের। ক্ষুদে পড়ুয়াদের ICDS সেন্টারের প্রতি আকর্ষণ বাড়াতেই এই ব্যবস্থা।

নিদিষ্ট সময়েই অভিভাবকদের হাজির হয় ক্ষুদেরা। বাসের সিটের বদলে ফাঁকা জায়গার পড়ানো হয় A,B,C,D থেকে ক,খ,গ,ঘ। বাসের মধ্যে চারটি দেওলারের মধ্যে নানান ছড়া ও বাক্যের মাধ্যমে পাঠ দেওয়া হয় ক্ষুদেদের।  এই সেন্টারে নির্মাণ সহায়ক মোহিত পোড়েল জানান, এটা এক ধরনের স্বাদ বদলের পদ্ধতি মাত্র। সাধারণ ICDS সেন্টারের মত না করে অন্য ধরনের সেন্টার মানুষের কাছে গ্রহনযোগ্য ও আকর্ষণীয় করার উপায়।  যদিও সেন্টারে পাঠ দেবার পাশাপাশি বাসের পিছনের অংশে আছে রান্নাঘর। পাঠ নেবার পরে পেটভরে খাবারও মিলবে এই বাসে। বর্তমানে ICDS সেন্টারে অনেক অভিভাবকও তার সন্তানকে বলেন " চল মাদপুরের বাসে ঘুরে আসি।

Published by:Arka Deb
First published: