coronavirus: 'টাকা না দিলে করোনা ছড়াব' ! কোভিড আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়েই পাওনা আদায় করতে গেলেন ব্যক্তি !

coronavirus: 'টাকা না দিলে করোনা ছড়াব' ! কোভিড আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়েই পাওনা আদায় করতে গেলেন ব্যক্তি !

covid 19

আজ সকালে ওই ব্যক্তি হোয়াটসঅ্যাপে নিজের স্ত্রীর ছবি দেখিয়ে ভয় দেখান। বলেন টাকা না দিলে করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে আসবেন ! এবং করোনা ছড়িয়ে দেবেন।

  • Share this:

    #বৈদ্যবাটি:  দেশে দিন দিন ভয়াবহ হচ্ছে কোভিড পরিস্থিতি। রোজ হাজারে হাজারে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে এই ভাইরাসে। হাসপাতালে বেড ধেকে শুরু করে অক্সিজেন কিছুই নেই। অসহায় বোধ করছেন ডাক্তাররাও। এই অবস্থায় একমাত্র ভরসা ভ্যাকসিন। তবে এই করোনাকালেও মানুষ যে কতটা নিষ্ঠুর হতে পারে, তার প্রমানও মিলছে। সম্প্রতি হুগলির একটি ঘটনা সকলকে চমকে দিয়েছে। বৈদ্যবাটি মাটিপাড়ার এক বাসিন্দা গঙ্গারাম সরকার করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়ে গিয়ে হাজির হন পাওনাদারের বাড়ি।

    গঙ্গারাম সরকারের স্ত্রী জয়া সরকার করোনা আক্রান্ত হন। সেই স্ত্রীকে নিয়েই পাওনা আদায় করতে গেলেন ওই ব্যক্তি। ভয় দেখালেন করোনা ছড়িয়ে দেওয়ার। ইঁটের ব্যবসার সুবাদে ইটভাটার মালিক শেষনাথ সিং এর কাছ থেকে বকেয়া টাকা পাওনা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে পাওনা বকেয়া টাকা ইঁটভাটা মালিক না দেওয়ায়, আজ বিকালে পাওনা টাকা আদায় করতে করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে অটোরিকশায় চাপিয়ে সটান হাজির হয় ইটভাটা মালিকের বাড়িতে। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেন ইটভাটা মালিক শেষনাথ সিং।

    শেষনাথ সিং জানান, কয়েক মাস আগে উনি টাকা দিয়েছিলেন। উনিও ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে ব্যবসায় মন্দা থাকায় বকেয়া মেটানো যাচ্ছিল না। সকলেরই ব্যবসায় ঘাটতি চলছে। আজ সকালে ওই ব্যক্তি হোয়াটসঅ্যাপে নিজের স্ত্রীর ছবি দেখিয়ে ভয় দেখান। বলেন টাকা না দিলে করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে আসবেন। এবং করোনা ছড়িয়ে দেবেন। এই কথা বলার কিছুক্ষণের মধ্যেই স্ত্রীকে অটো রিকশাতে চাপিয়ে বাড়ি চলে আসেন। এবং সকলকে করোনার ভয় দেখাতে থাকেন। বাধ্য হয়েই তাঁর টাকা সব মিটিয়ে দেওয়া হয়। তারপর তিনি এখান থেকে যান।" ইঁটভাটা মালিকের অভিযোগ, এইভাবে করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে বাড়ির ভিতরে ঢুকিয়ে দেওয়ায়, তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। করোনার রোগীকে সঙ্গে নিয়ে আরও রোগ সংক্রামিত করা হয়েছে বলে, সমস্ত বিষয়টি নিয়ে পুলিশ কাছে জানাবেন ইটভাটা মালিক। পাওনাদার টাকা নিয়ে চলে যাওয়ার পর বাড়িটিকে নিজেরাই সাবান জল দিয়ে ধুয়ে স্যানিটাইজ করেছেন। দেশের এই ভয়ানক পরিস্থিতিতে কিভাবে এই কাজ করতে পারেন ওই ব্যক্তি, তা ভেবেই অবাক হয়েছেন এলাকার লোকজন। অনেকেই ওই ব্যক্তির শাস্তি চেয়েছেন।

    Rana Karmakar

    Published by:Piya Banerjee
    First published: