Home /News /south-bengal /
বগটুই অগ্নি সংযোগের ঘটনায় ও ভাদু খুনের ঘটনায় প্রথম জোড়া চার্জশিট পেশ CBI-র

বগটুই অগ্নি সংযোগের ঘটনায় ও ভাদু খুনের ঘটনায় প্রথম জোড়া চার্জশিট পেশ CBI-র

চার্জশিটে সাত জনকে জীবিত অবস্থায় হত্যা আগুন লাগিয়ে। ভাদু খুনের প্রতিশোধ নিতে বগুটুই অগ্নি সংযোগ ঘটনা উল্লেখ চার্জশিটে। পাশাপাশি বেআইনি তোলাবাজি দুই গ্রুপ এর ঝামেলায় হত্যা ভাদু শেখকে, চার্জশিটে উল্লেখ সূত্র। 

  • Share this:

#কলকাতা: উন্নব্বই দিনের মাথায় বগটুইকাণ্ডে জোড়া চার্জেশিট পেশ সিবিআইয়ের। সোমবার রামপুরহাট আদালতে বগটুই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় প্রথম চার্জশিট পেশ করা হয় সিবিআইয়ের তরফে ।পাশাপাশি রামপুরহাট বড়াশাল গ্রামের পঞ্চায়েতের প্রধাণ তৃণমূলের নেতা ভাদু শেখ খুনের ঘটনাতেও সোমবার চার্জেশিট পেশ করে সিবিআই। সিবিআই সূত্রে খবর, বগুটুই অগ্নিসংযোগকাণ্ডে চার্জাশিটে আনারুল সহ মোট আঠারো জনের নাম রয়েছে বলে সিবিআই সূত্রে খবর। সোমবার রামপুরহাট আদালতে সেই চার্জেশিট জমা দেয় সিবিআই। তবে চার্জাশিটে ১৮জনের  মধ্যে দু’জন নাবালকের নাম রয়েছে৷ নাবালকদের চার্জেশিট সিউড়ি জুভানাইল আদালতে পেশ করা হবে সিবিআইয়ের তরফে। চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে যে, বগটুইতে বোমা ছুঁড়ে প্রথমে এলাকায় আতঙ্ক জন্য। এরপর সোনা শেখ ( যার বাড়ি থেকে ৭ জনের দেহ উদ্ধার হয় )ঘর থেকে বেরোতে দেয়নি৷ এরপর জীবিত অবস্থায় সাত জনকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। সোনার বাড়ির উল্টোদিকে রাস্তায় পাশে ফটিকের বাড়িতে ফটিকের স্ত্রীকে হত্যা করে আগুনে ছুঁড়ে ফেলে দেয়। সবই উল্লেখ রয়েছে চার্জশিটে৷

আরও দেখুন Covid Update | রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণ, চারদিন পর রাজ্যে ফের করোনায় মৃত্যু

সিবিআই সূত্রে খবর, ৮৯দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ হল রামপুরহাট আদালতে । বগটুই অগ্নিসংযোগের কারণ ভাদু শেখ খুনের প্রতিশোধ নিতেও দুই  গ্রুপের ঝামেলায়  গ্রামে বাড়ি  পুড়িয়ে হত্যা উল্লেখ করা হয়েছে চার্জাশিটে। বগটুই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মোট ২৭জনকে সিবিআই ও জেলা পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। সিবিআই সূত্রে খবর, 302( খুন ), 435 ( আগুন লাগানো ), 436 ( আগুন লাগিয়ে হত্যা ), 326( অস্ত্র দিয়ে গুরুতর আঘাত ), 325( গুরুতর আঘাত ), 148, 147, 149 ( গন্ডগোল পাকানো, গন্ডগোল জন্য জমায়েত ), 120 বি ( ষড়যন্ত্র ), 201 ( প্রমাণ লোপাট ) সহ একাধিক ধারায় মামলার  উল্লেখ রয়েছে চার্জশিটে। আনারুলের বিরুদ্ধে এই সব কয়েকটি ধারা সহ 109 ধারা সংযুক্ত করা হয়েছে।

সিবিআই সূত্রে খবর, বগটুই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ১১৯৩পাতার চার্জশিট জমা দেয় সিবিআই। চার্জাশিটে  ১৮জনের নাম  ও পলাতক দু’জনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। সিবিআই সূত্রে খবর , আনারুল, আজাদ চৌধুরী, বাপ্পা শেখ, সাবু শেখ, চাঁদশেখ, সহ ১৮জনের নাম রয়েছে চার্জশিটে। এর মধ্যে  ২ জন নাবালকের চার্জশিট পেশ  সিউড়ি জুভেনাইল আদালতে। বগটুই অগ্নি সংযোগের ঘটনায় পলাতক দু’জনের নাম চার্জেশিটে রয়েছে, লালন শেখ ও জাহাঙ্গীর শেখ। সিবিআই সূত্রে খবর, বগটুইকাণ্ডে ধৃত আনারুলের বিরুদ্ধে 109 ধারা ( উস্কানি দেওয়া ইন্ধন জোগানো) সংযুক্ত করা হয়েছে।  বগটুই আগুন লাগানোর ঘটনায় উস্কানি ও গ্রামবাসীরা ফোন করলেও সহযোগিতা করেনি আনারুল বলে অভিযোগের কথা উল্লেখ রয়েছে, সিবিআই সূত্রে খবর । চার্জশিটে  রয়েছে, 302, 435, 436, 326, 325,148,147, 149, 201, 120 B ধারা উল্লেখ চার্জ শিটে। এর সঙ্গে আনারুলের  বিরুদ্ধে 109 ধারা সংযুক্ত হয়েছে। বগটুইতে চার্জাশিটে উল্লেখ জীবিত অবস্থায় ৭জনকে হত্যার কথা। 201( প্রমাণ লোপাট ), 109 ধারা সংযুক্ত করা হয়েছে বগুটুই অগ্নি সংযোগকাণ্ডের চার্জশিটে দাবি সিবিআইয়ের।

আরও পড়ুন Suicide News: আর কে ডাকবে বাবা বলে...ফাদার্স ডে-র আগেই চরম পথ বেছে নিল একমাত্র সন্তান সোহম

অন্যদিকে, রামপুরহাটে তৃণমূল নেতা ভাদু শেখ খুনের ঘটনায় চার্জেশিট পেশ হল রামপুরহাট আদালতে। সিবিআই সূত্রে খবর, সঞ্জু  শেখ সহ  ৪ জনের নাম রয়েছে চার্জাশিটে ।  ৮৯দিনের মাথায় চার্জেশিট পেশ করা হয় । চার্জশিটে ৪০জন সাক্ষীর কথা উল্লেখ রয়েছে। চার্জাশিটে উল্লেখ, ভাদু হত্যার কারণ দুই গ্রুপের পুরোনো ঝামেলা  অর্থাৎ "ডাক সিন্ডিকেট "বা  বেআইনি তোলাবাজি নিয়ে ভগবাটোয়ারার জন্যই খুন, দাবি সিবিআই তরফে। ভাদু খুনের ঘটনায় মোট ৬জন গ্রেফতার হয়েছিল। পলাতক হিসাবে পলাশ খানের নাম উল্লেখ রয়েছে৷ রামপুরহাটে ভাদু শেখ খুনে ১৮০ পাতার চার্জেশিট সোমবার জমা পরে  রামপুরহাট আদালতে। সিবিআই সূত্রে খবর, ধৃত সঞ্জু শেখ সহ ৪জনের নাম চার্জাশিটে। ভাদু খুনে পলাতক ৩। পলাতকের মধ্যে নাম রয়েছে পলাশ খান, দাবি সিবিআইয়ের। ভাদু খুনে302 ( খুন ), 120 b ( ষড়যন্ত্র ), 3/4 E. S act (এক্সপ্লসিভ সাবস্টেন্স এক্ট ),  25  1A / 27 আর্মস অ্যাক্ট ধারা উল্লেখ রয়েছে চার্জশিটে। গত ২১ মার্চ সাড়ে আটটা নাগাদ রামপুরহাটে তৃণমূল নেতা ভাদু শেখকে বোমা মেরে হত্যা করে দুষ্কৃতীরা। আর তার কিছুক্ষণ পরই  বগটুই গ্রামে পর পর বাড়িতে অগ্নি সংযোগ করে খুন করা হয়। এক বাড়িতে সাত জনকে জীবিত অবস্থায় জ্বালিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পরবর্তীকালে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় দশ জন। হাই কোর্টে নির্দেশে সিবিআই তদন্ত ভার হাতে নিয়ে ৮৯দিনের মাথায় চার্জশিট জমা দিল সিবিআই অধিকারিকরা।

Published by:Pooja Basu
First published:

Tags: Bogtui case, CBI

পরবর্তী খবর