নির্বাচনের আগে তৃণমূল বিধায়করা বিজেপির ট্রেনে উঠতে ব্যস্ত, বিতর্কিত মন্তব্য সৌমিত্র খাঁর 

নির্বাচনের আগে তৃণমূল বিধায়করা বিজেপির ট্রেনে উঠতে ব্যস্ত, বিতর্কিত মন্তব্য সৌমিত্র খাঁর 

বিজেপির ট্রেন দ্রুত গতিতে ছুটছে। একের পর এক তৃণমূল বিধায়ক দৌড়তে দৌড়তে সেই বিজেপির ট্রেনে উঠে পড়ছেন। বুধবার পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে দলীয় জনসভায় এমনই মন্তব্য বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁর।

বিজেপির ট্রেন দ্রুত গতিতে ছুটছে। একের পর এক তৃণমূল বিধায়ক দৌড়তে দৌড়তে সেই বিজেপির ট্রেনে উঠে পড়ছেন। বুধবার পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে দলীয় জনসভায় এমনই মন্তব্য বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁর।

  • Share this:

#জামালপুর: দিদির নৌকা ডুবতে বসেছে। তাই সেই নৌকো থেকে লাফ মারছেন তৃণমূলের বিধায়করা। অন্যদিকে বিজেপির ট্রেন দ্রুত গতিতে ছুটছে। একের পর এক তৃণমূল বিধায়ক দৌড়তে দৌড়তে সেই বিজেপির ট্রেনে উঠে পড়ছেন। একে একে তৃণমূল বিধায়করা আসছেন বিজেপির সেই ট্রেনে। বুধবার পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরে দলীয় জনসভায় এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। বুধবার পূর্ব বর্ধমান জেলার জেলার জামালপুরে নির্বাচনী জনসভা করে বিজেপি। সেই সভায় মূল বক্তারূপে উপস্থিত ছিলেন বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। বক্তব্যের বেশিরভাগ সময়ই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করেন তিনি।

মঞ্চে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য বাংলার কৃষকরা কিষাণ নিধি প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। রাজ্য কোনও দিন আলু বীজ তৈরির বিষয়ে গুরুত্ব দেয়নি। তাই এ রাজ্যের কৃষকদের চড়া দামে পাঞ্জাবের আলু বীজ কিনে চাষ করতে হচ্ছে। উল্লেখ্য,পূর্ব বর্ধমান জেলার দামোদর ও মুন্ডেশ্বরী নদীর পার্শ্ববর্তী জামালপুরের উর্বর জমিতে উৎকৃষ্টমানের আলু উৎপাদিত হয়। বক্তব্য রাখতে গিয়ে আলুচাষিদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন বিজেপি সাংসদ।

বুধবার পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের চকদিঘিতে বিজেপির এই জনসভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপি যুবমোর্চা সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেন,দশ বছর ধরে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় থেকেও আলুবীজ তৈরি করার ক্ষেত্রে এ রাজ্য স্বনির্ভর হতে পারে নি। তাই পাঞ্জাব থেকে আলু বীজ আনতে হয়। পাশাপাশি স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও যুব তৃণনূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া সমালোচনা করেন তিনি। বহিরাগত ইস্যুতেও মুখ্যমন্ত্রীকে একহাত নেন তিনি। রাজ্যের শস্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত পূর্ব বর্ধমান জেলায় অন্যতম কৃষিনির্ভর এলাকা জামালপুরে ভোট প্রচারে এসে বারেবারেই কৃষকদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন সৌমিত্র খাঁ। তিনি সহায়ক মূল্যে ধান কেনার প্রসঙ্গে বলেন, কেন্দ্র কুইন্টালে ২৯০০ টাকা দিচ্ছে। আর মমতার সরকার দিচ্ছে কেজিতে ১৬ টাকা।কৃষি বিল চালু হলে পাঞ্জাবের কৃষকদের আলুবীজ আর বিক্রি হবে না। তাই তারা আন্দোলন করছে। বিজেপি এ রাজ্যে ক্ষমতায় এসে আলু বীজ তৈরিতে স্বনির্ভর হওয়ার ক্ষেত্রে জোর দেবে বলে মন্তব্য করেন সৌমিত্র খাঁ।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published:

লেটেস্ট খবর