• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • BENGAL NEWS HOWRAH POLICE SUB INSPECTOR RECOVERED MONEY AND IMPORTANT DOCUMENTS SANJ

Bengal News | Howrah : পুলিশ দিবসেই পুলিশের বিরাট জয়! রেলকর্মীর টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ নথি উদ্ধার সাব ইন্সপেক্টরের...

হাওড়া পুলিশে কৃতজ্ঞ রেলকর্মী

Bengal News | Howrah : রাজ্য পুলিশের দ্বিতীয় বর্ষ পুলিশ দিবস হলেও হাওড়া সিটি পুলিশের (Howrah City Police) বুধবার ছিল দশম জন্মদিন।

  • Share this:

#হাওড়া : পুলিশ দিবসেই পুলিশের বিরাট জয়।পুলিশের চেষ্টায় খোয়া যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ও টাকা ফেরত পেলেন এক ব্যক্তি। রাজ্য পুলিশ দিবসে (Bengal News Howrah) এইরকম একটি ঘটনা দিনটিকে অন্য মাত্রা দিল বলে দাবি হাওড়া সিটি পুলিশের (Bengal News - Howrah) ডেপুটি কমিশনার অফ ট্রাফিক অর্ণব বিশ্বাসের। আর রেল কর্মীর সর্বস্য ফিরিরে দিয়ে হাওড়া ট্রাফিক পুলিশের মুখ হলেন সাব ইন্সপেক্টর গোপাল কর্মকার।

রাজ্য পুলিশের দ্বিতীয় বর্ষ পুলিশ দিবস (West Bengal Police Day) হলেও হাওড়া সিটি পুলিশের (Howrah City Police) আজ দশম জন্মদিন। জানা যায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ব্যাটরা সাব ট্রাফিক গার্ডের সামনে ডিউটি করার সময় একটি ব্যাগ কুড়িয়ে পায় (Bengal News - Howrah) পুলিশ কর্মী গোপালবাবু। ব্যাগ খুলে দেখা যায় তার মধ্যে রয়েছে কয়েকহাজার টাকা, পে স্লিপ , আধার কার্ড ও রেলের আই কার্ড। ব্যাগে কোনও ফোন নম্বর না থাকায় যোগাযোগ করতে পারা যায়নি। বুধবার সকাল হতেই টিকিয়া পাড়া রেল কোশেডের কর্মী কলকাতা পন্যাশ্রী এলাকার বাসিন্দার শিবশঙ্কর হালদারের ফোন নম্বর জোগাড় করে তার সাথে যোগাযোগ করে তাকে ডেকে পাঠানো হয়।

শিবশঙ্কর বাবু জানান, "চ্যাটার্জী পাড়া থেকে বাস ধরতে গিয়ে ব্যাগটি পরে যায়। তারপর বাস ভাড়া দেওয়ার সময় বুঝতে পারি আমার ব্যাগটি খোয়া গেছে। প্রথমে ভেবেছিলাম সেটি চুরি গেছে। ব্যাগটিতে অফিসের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিল। যেটি খোয়া গেলে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হত। ব্যাগটি হারিয়ে যাওয়ার পর থেকে খুব মানসিক বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলাম। দিন সকাল থেকে বিভিন্ন ভাবে দেখছিলাম পুলিশ দিবস উৎযাপন হচ্ছিল। বুঝতে পারিনি এই পুলিশ দিবসের সকালে পুলিশের থেকে ফোন পাব আর সেই পুলিশ অফিসারের হাতধরেই আমার খোয়া যাওয়া সামগ্রী ২৪ ঘণ্টার আগেই ফেরত পাব সেটাও আশা করিনি।"

হাওড়া সিটি পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের ডি সি ট্রাফিক অর্ণব বিশ্বাস এই মহৎ কাজের জন্য গোপাল বাবুকে  বিশেষ ভাবে পুরস্কিত করেন। গোপাল বাবু জানান পরের বছর এই পুলিশ দিবস আমাকে থাকতে হবে বাড়িতে কারণ পরের বছর শুরুতেই আমার কর্মজীবন শেষ হতে চলছে। তাই জীবনের শেষ কর্মরত অবস্থায় এই পুলিশ দিবসটা জীবনের সেরা পাওনা। আজকের দিনে মানুষের মুখে হাসি ফেরাতে পেরে আমি খুশি।

দেবাশীষ চক্রবর্তী

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: