জেলা স্তরে শুরু ভোটের প্রস্তুতি, বীরভূমে স্পর্ষকাতর বুথগুলি প্রাথমিক চিহ্নিতকরণ প্রসাশনের

জেলা স্তরে শুরু ভোটের প্রস্তুতি, বীরভূমে স্পর্ষকাতর বুথগুলি প্রাথমিক চিহ্নিতকরণ প্রসাশনের
মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিক বিজয় ভারতী জানান,করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এক হাজার ভোটার পিছু একটি করে বুথ তৈরির কথা মাথায় রেখে একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। কারণ সদ্য শেষ হওয়া বিহারের নির্বাচন এমনই হয়েছিল।

মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিক বিজয় ভারতী জানান,করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এক হাজার ভোটার পিছু একটি করে বুথ তৈরির কথা মাথায় রেখে একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। কারণ সদ্য শেষ হওয়া বিহারের নির্বাচন এমনই হয়েছিল।

  • Share this:

#বীরভূম: বিধানসভা নির্বাচনের আগে জেলার স্পর্শকাতর বুথগুলিকে প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করল জেলা প্রশাসন। আগামিকাল নির্বাচন কমিশনের ফুলবেঞ্চের সামনে সেই সব তথ্য তুলে দেবেন জেলা মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিক বিজয় ভারতী।পাশাপাশি জেলার বুথগুলির সর্বশেষ পরিস্থিতি বিডিওদের কাছে জেনে নিয়ে একটি তালিকা তৈরি করল জেলা নির্বাচনী দফতর। তাও হাজির করা হবে কমিশনের সামনে।

বীরভূম সীমানায় ১০৮ কিলোমিটার বরাবর ঝাড়খন্ড। সীমান্ত বরাবর জেলার ৯৭ টি বুথকেই স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করেছে জেলা। পাশাপাশি জেলার শেষ লোকসভা নির্বাচনের ১০৯ টি বুথে ৯০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে। সেই সব এলাকায় একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের প্রার্থী একাই ৭৫ শতাংশের বেশি ভোট পেয়েছে। সেগুলিকে স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। উল্লেখ্য বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রে মুরারই, নলহাটি বিধানসভায় তৃণমূলের সপক্ষে ব্যাপক ভোট পড়ায় জেলার চারটি বিধানসভা এলাকায় বিজেপির থেকে পিছিয়ে থেকেও জয়ী হয় তৃণমুল প্রার্থী। রাজনৈতিক দলগুলির দাবি ওই সব এলাকায় কী ভাবে ভোট বেড়েছে তা তাদের নজরে আছে। কারণ লোকসভা নির্বাচনের ভিত্তিতে সারা দেশে যে সব জেলা রাজনৈতিকভাবে স্পর্শকাতর সেই তালিকায় বীরভূমের নাম রয়েছে। বিজেপির পক্ষ থেকেও রাজ্যের বেশ কিছু জেলা নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানান হয়েছে।

বিজেপি সূত্রে খবর সেই অভিযোগে বীরভূমের নাম আছে। তাই আজ, মঙ্গলবার, কলকাতায় নির্বাচন কমিশনের ফুলবেঞ্চের সামনাসামনি হওয়ার আগে নিজেদের প্রস্তুতি সেরে রেখেছে জেলা। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও তাই বিধানসভা নির্বাচনের আগে জেলার স্পর্শকাতর এলাকাগুলি চিহ্নিত করা হয়েছে। জেলার মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক বিজয় ভারতী জেলার ১৯ টি ব্লকের বিডিও ও জেলা নির্বাচনী সেলের প্রধানদের ডেকে দীর্ঘ বৈঠক করেন। যেখানে জেলার ৩০২১ টি বুথের অবস্থানগত পরিস্থিতি কী তা জেনে নিলেন। বুথগুলিতে নির্বাচন করার পরিস্থিতি,আলো বাতাস, যোগাযোগ, পানীয় জল, এমনকি ভোটকেন্দ্রে বৃদ্ধদের ওঠার জন্য র‌্যাম্প আছে কিনা তারও তালিকা তৈরি করে রাখা হল।


মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিক বিজয় ভারতী জানান,করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এক হাজার ভোটার পিছু একটি করে বুথ তৈরির কথা মাথায় রেখে একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। কারণ সদ্য শেষ হওয়া বিহারের নির্বাচন এমনই হয়েছিল। যদিও তিনি জানান, এখনও পর্যন্ত কমিশন নির্দিষ্ট কোনও নির্দেশিকা দেয়নি। তবুও তাঁরা প্রস্তুতি সেরে রাখছেন, জানান  বিজয় ভারতী। জেলা নির্বাচনি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে ১০৫০ টির বেশি ভোটার আছে এমন বুথের সংখ্যা ৩৯৮৭ টি ।যার মধ্যে ১৪৫০ টির বেশি ভোটার আছে এমন বুথের সংখ্যা ৪৮ টি।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর