Home /News /south-bengal /
Bardhaman News: বাস্তু মতে ভুল দিকে বাড়ি! গোটা বাড়ি তুলে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে অন্য দিকে! অবাক ঘটনা বর্ধমানে!

Bardhaman News: বাস্তু মতে ভুল দিকে বাড়ি! গোটা বাড়ি তুলে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে অন্য দিকে! অবাক ঘটনা বর্ধমানে!

Bardhaman News: বাস্তু মতে ভুল দিকে বাড়ি বানিয়ে ফেলেছিলেন ব্যক্তি! সংসারে অশান্তি লেগেই ছিল! তবে নতুন করে ভেঙে বাড়ি বানাতে অনেক খরচা! অত টাকা নেই! তাই গোটা বাড়িটাকেই মাটি থেকে আস্ত তুলে সরিয়ে দেওয়া হল! অবাক কাণ্ড

  • Share this:

#বর্ধমান: ঈশান কোণে মন্দির করার নিয়ম রয়েছে হিন্দু শাস্ত্রে। বাড়ি যখন হয় তখন ভুল করে মন্দির চলে যায় অগ্নি কোণে। সেই বাড়ির দিক পরিবর্তন করতে ,বাড়ি না ভেঙে পুরনো বাড়িটিকে সরানো হচ্ছে প্রায় ৭৫ ফুট। তাই দেখতে ভির জমিয়েছে দূর দূরান্তের মানুষ। ঘটনাটি কালনা পূর্ব সাতগেছিয়া পঞ্চায়েতের অন্তর্গত শাশপুরের।

পূর্ব বর্ধমানের সাতগেছিয়া পঞ্চায়েতের শাশপুর গ্রামের উদয় বিশ্বাস ১০ বছর আগে একটি বাড়ি তৈরি করেন। এই বাড়িটি করার পর থেকে উদয় বাবুর নানা রকম পারিবারিক সমস্যা দেখা দিয়েছিল। তিনি দারস্থ হয় পণ্ডিতের কাছে। পণ্ডিত নিধান দেয় যে আপনার বাড়ির মন্দিরটি রয়েছে সেটি ঈশান কোণে না থাকায় আপনার পারিবারিক সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।সেই মতন উদয়বাবু ঠিক করেন নতুন করে আবার বাড়ি তৈরি করবেন। কিন্তু দশ বছরের আগে যে বাড়ি করতে ২৫ লাখ টাকা খরচা হয়েছিল এখন করতে প্রায় ৩৫ লক্ষ টাকা খরচা হবে। এই খরচ বহন করা অসম্ভব।সেই অসম্ভবকে সম্ভব করে দিল ইউটিউব।ইউটিউবে তিনি দেখেছিলেন বাড়ি না ভেঙে কিভাবে সমস্ত বাড়ি ঘোরানো বা সরানো যায় ‌।সেই মতন তিনি যোগাযোগ করে হরিয়ানার একটি কোম্পানির সঙ্গে যার শাখা রয়েছে কলকাতার বাইপাসের ধারে।

আরও পড়ুন:  'চোর ধরো, জেলে ভরো' কর্মসূচিতে হেনস্থা ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ! পুলিশের বিরুদ্ধে আদলতে যাবার ইঙ্গিত সুকান্ত মজুমদারের!

এরপর ওই কোম্পানির লোক এসে দেখে যায় । গত ১৫ দিন আগে থেকে কাজ শুরু করে ওই সংস্থার।চুক্তি হিসেবে ৪৫০ টাকা স্কয়ার ফুট হিসেবে কাজ হচ্ছে বলে জানা যায়। বাড়িটি এক হাজার স্কয়ার ফুট রয়েছে।সাড়ে চার লক্ষ টাকায় কাজ মিটছে। বাড়িটি নতুন করে তৈরি করতে হচ্ছে না। আবার তা ঘুরিয়ে মন্দির নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ঈশান কোণে। এই কাজ করছেন প্রায় ১৫ জন শ্রমিক। এই শ্রমিকদের প্রত্যেকেই বাড়ি বাইরে।আর এই কাজ দেখতে ভিড় জমিয়েছেন এলাকার মানুষ। তারা জানাচ্ছেন ইউটিউবে এতদিন তারা দেখেছেন স্বচক্ষে দেখে অনেক আশ্চর্য হচ্ছেন।

Saradindu Ghosh

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Bardhaman, Bardhaman news

পরবর্তী খবর