• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • আজ অমিত-মমতার মিশন জঙ্গলমহল, 'রেজাল্ট ভাল'র আশায় বিজেপি! জমি ছাড়ছে না তৃণমূলও

আজ অমিত-মমতার মিশন জঙ্গলমহল, 'রেজাল্ট ভাল'র আশায় বিজেপি! জমি ছাড়ছে না তৃণমূলও

 সকাল এগারোটায় ঝাড়গ্রামের সার্কাস ময়দানে সভা করবেন তিনি। তার পর দুপুর একটা নাগাদ সভা রয়েছে বাঁকুড়ার রানিবাঁধে।

সকাল এগারোটায় ঝাড়গ্রামের সার্কাস ময়দানে সভা করবেন তিনি। তার পর দুপুর একটা নাগাদ সভা রয়েছে বাঁকুড়ার রানিবাঁধে।

সকাল এগারোটায় ঝাড়গ্রামের সার্কাস ময়দানে সভা করবেন তিনি। তার পর দুপুর একটা নাগাদ সভা রয়েছে বাঁকুড়ার রানিবাঁধে।

  • Share this:
    #রানিবাঁধ: জঙ্গলমহল দখলে মরিয়া দুই শিবির। লোকসভা ভোটের বিচারে পুরুলিয়ায় পিছিয়ে রয়েছে তৃণমূল। ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া এবং বাঁকুড়া- এই তিনটি কেন্দ্রেই ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে জিতেছে বিজেপি। ফলে বিধানসভা ভোটে জঙ্গলমহলে রেজাল্ট ভাল হবে বলে আশা করছে গেরুয়া শিবির। আর তাই জঙ্গলমহল দিয়েই নির্বাচনী প্রচার শুরু করছে বিজেপি। আজ জঙ্গলমহলে সভা করবেন অমিত শাহ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভা জঙ্গলমহলে বিজেপিকে বাড়তি অক্সিজেন দেবে বলে আশা করছে রাজ্যের গেরুয়া শিবির। তবে জঙ্গলমহলে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়ছে না তৃণমূল। আজ জঙ্গলমহলে নির্বাচনী প্রচারে যাচ্ছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। অমিত ও মমতার মোট চারটি সভা রয়েছে আজ জঙ্গলমহলে। অর্থাত্, বাংলার রাজনীতিতর প্রেক্ষাপটে আজ জমজমাট সোমবার। অসমের প্রচার সেরে রবিবারই রাজ্যে এসেছেন অমিত শাহ। ভোটের দিন ঘোষণার পর এই প্রথম রাজ্য সফরে এসেছেন তিনি। খড়গপুরের রোডশোতে অংশ নিয়েছেন তিনি। যদিও রোডশো হতে সন্ধ্যে নেমে এসেছিল। তবে তাতেও জনজোয়ারে ভাঁটা পড়েনি। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও খড়গপুর সদরের প্রার্থী অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায় তাঁর সঙ্গে রোডশোতে ছিলেন। খড়গপুর পর্ব শেষ করেই আজ মিশন জঙ্গলমহলে অমিত শাহ। সকাল এগারোটায় ঝাড়গ্রামের সার্কাস ময়দানে সভা করবেন তিনি। তার পর দুপুর একটা নাগাদ সভা রয়েছে বাঁকুড়ার রানিবাঁধে। দুটি সভাতেই জঙ্গলমহলে বিজেপি প্রার্থীরা থাকবেন। জঙ্গলমহল একসময় তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি ছিল। তবে এখন ঘাঁটিতে হানা দিয়েছে বিজেপি। তৃণমূল অবশ্য জমি পুনর্দখলে নেমেছে। আজ জঙ্গলমহলে দুটি সভা রয়েছে তৃমমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যাপাধ্যায়েরও। পুরুলিয়ার বাঘমুণ্ডি বিধানসভার ঝালদার হাটতলা ও বলরামপুরের রথতলায় সভা করবেন তিনি। প্রথম সভা দুপুর দেড়টা থেকে। দ্বিতীয়ি তিনটে থেকে। মমতা আগেই জানিয়েছেন, পায়ের চোট তাঁকে রুখতে পারবে না। দরকার হলে হুইল চেয়ারে তিনি জেলা জেলায় জনসভা করবেন। নন্দীগ্রাম দিবস উপলক্ষে তিনি কলকাতার রাস্তায় মিছিলে অংশ নিয়েছেন। হুইল চেয়ারে বসেই। বেনজির মমতার মিছিল দেখেছেন রাজ্যবাসী। আজ জঙ্গলমহলও হয়তো তাঁর আরেক বেনজির সভার সাক্ষী থাকবে। ২১-এর ভোটের আগে তো চমকের শেষ নেই!
    Published by:Suman Majumder
    First published: