হিন্দুর মুখাগ্নির জন্যে জমি দিলেন মুসলমান, ইদ্রিশকে কুর্ণিশ করছেন সকলে

হিন্দুর মুখাগ্নির জন্যে জমি দিলেন মুসলমান, ইদ্রিশকে কুর্ণিশ করছেন সকলে
মল্লারপুরের মুরুলিডাঙ্গাল গ্রামের মুখাগ্নির জন্যে ভীত কাটা হচ্ছে৷ ছবি-সুশান্ত পাল

গ্রামের শেষ প্রান্তে রাস্তার ধারে মৃতদেহ নামিয়ে সেখানেই এতদিন ধরে জায়গার অভাবে মুখাগ্নি করে আসছিলেন গ্রামের মানুষ।

  • Share this:

#বীরভূমঃ হিন্দু সম্প্রদায়ের মৃতদের মুখাগ্নির জন্য জমি দিলেন এক মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। সম্প্রীতির এই ঘটনার সাক্ষী থাকলেন উভয় সম্প্রদায়ের মানুষ। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের রামপুরহাট মহকুমার ময়ুরেশ্বরের মুরুলিডাঙ্গাল গ্রামে।

ময়ূরেশ্বরের ওই গ্রাম থেকে মল্লারপুর পর্যন্ত রাস্তা চওড়া করতে গিয়ে মুখাগ্নির জায়গার ওপর থেকেই রাস্তা তৈরি হয়। তাই গ্রামের শেষ প্রান্তে রাস্তার ধারে মৃতদেহ নামিয়ে সেখানেই এতদিন ধরে জায়গার অভাবে মুখাগ্নি করে আসছিলেন গ্রামের মানুষ।

মুখাগ্নির পুরনো জায়গা লাগোয়া জায়গা আবার মুসলিমদের। দু ’একবার ওই জায়গায় মুখাগ্নি করতে গিয়ে বিবাদের সৃষ্টি হয়েছিল।  ওই বিবাদ থামাতে নিজের জমি দান করে হিন্দুদের শেষকৃত্যে মুখাগ্নিতলা নির্মাণের সুযোগ করে দিলেন ওই গ্রামেরই বাসিন্দা ইদ্রিশ শেখ।

এই মুখাগ্নির জায়গার নাম দেওয়া হয়েছে স্বর্গপথ। গ্রামের অনেকেই বলছে ইদ্রিশের এই দান গ্রামের মানুষ বংশ পরম্পরায় মনে রাখবে।  জায়গা হাতে পেতেই মুখাগ্নিতলা উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দ করে কানাচি গ্রাম পঞ্চায়েত। পঞ্চায়েত প্রধান নিবেদিতা দাস জানান, মুখাগ্নিতলার পাঁচিল নির্মানে ৪ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। সে টাকায় কাজ শুরু হবে।

গ্রামের বাসিন্দা শুভাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন ‘‘আমরা পঞ্চায়েত ও গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে ইদ্রিশ শেখকে সন্মান জানাতে তাকে দিয়েই প্রথম মাটি কেটে ভিত্তি স্থাপনের অনুরোধ করি।’’ ইদ্রিশ শেখ জানান, দুশতক জমির বাজার মূল্য অনেক। কিন্তু এ টাকা যাবে আসবে। কিন্তু হিন্দুদের একটা কাজে লাগতে পারলাম, তাঁরা যা সম্মান দিল সেটা আগামী জীবনের আমার দোয়া হয়ে থাকবে। আমি চাই গ্রামে সকলে শান্তিতে থাকুক।

Supratim Das

First published: March 13, 2020, 2:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर