Home /News /south-bengal /

'চেনম্যান' গ্রেফতারের নেপথ্যে ছিল এই সিভিক ভলেন্টিয়ারের উপস্থিত বুদ্ধি, চিনে নিন তাঁকে...

'চেনম্যান' গ্রেফতারের নেপথ্যে ছিল এই সিভিক ভলেন্টিয়ারের উপস্থিত বুদ্ধি, চিনে নিন তাঁকে...

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

হাতেনাতে চেনম্যানকে ধরে শুধু এলাকার নয়, রাতারাতি রাজ্যের চোখে হিরো হয়ে গিয়েছেন সিভিক ভলেন্টিয়ার অনির্বান।

  • Share this:

#কালনা: চেনম্যান'-এর একের পর এক হামলা-খুনে পুলিশ যখন দিশেহারা, ঠিক তখনই এসেছিল স্বস্তির খবর। কালনার মেদগাছি থেকে সহজপুর যাওয়ার রাস্তায় সাটপুকুর এলাকায় তাকে ধরে ফেলেন সিভিক ভলান্টিয়ার অনির্বাণ ঘোষ।

সিসি টিভির ফুটেজ থেকে বের করা স্টিল ছবি দেখেছিলেন অনির্বাণ। লাল হেলমেট, লাল-কালো মোটরবাইক, বাইকের সাইডে ঝোলানো নাইলনের ব্যাগ। সুটেড-বুটেড আরোহী। কেমন যেন সন্দেহ হয়েছিল, এই সেই চেনম্যান নয় তো!

দেরি করেননি অনির্বাণ। রাস্তার ধারে দাঁড় করিয়েছিলেন বাইক আরোহীকে। পকেট থেকে মোবাইল বার করে ছবি তুলে হোয়াটস অ্যাপে পাঠিয়ে দেন বুলবুলিতলা ফাঁড়ির দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসারকে। ফরোয়ার্ড করেন কালনা থানার ওসিকেও। ছবি দেখেই অবাক পুলিশ অফিসার-রা। সময় নষ্ট না করে পুলিশবাহিনী সাটপুকুর পাড়ে পৌঁছয়। তল্লাশিতে নাইলনের ব্যাগে মেলে লোহার রড, চেন। আর তাতেই অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যান পুলিশ অফিসাররা। গ্রেফতার করে কামরুজ্জামানকে। প্রথমে বুলবুলি তলা ফাঁড়ি ও তারপর নিয়ে যাওয়া হয় কালনা থানায়। জেরায় মহিলাদের ওপর একের পর এক হামলা ও খুনের কথা স্বীকার করে নেয় অভিযুক্ত।

হাতেনাতে চেনম্যানকে ধরে শুধু এলাকার নয়, রাতারাতি রাজ্যের চোখে হিরো হয়ে গিয়েছেন সিভিক ভলেন্টিয়ার অনির্বাণ। এ দিকে, গ্রেফতারের দিন থেকেই চেনম্যানকে শুরু হয় জেরা। পুলিশকে অবাক করে সে জানাতে থাকে খুনের ঘটনা পরম্পরা। জানা যায়, দু-চারটি নয়, কামরুজ্জামান খুন করে আসছে পাঁচ বছর আগে থেকে। একের পর এক জায়গায় নিয়ে গিয়ে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করা হয়। কোন দোকান থেকে কবে সে কটি চেন কিনেছিল সে সবও জানায় গড়গড় করে।

কালনার সিঙ্গের কোনে নাবালিকাকে মাথায় আঘাত করার পর গলায় কাপড় বেঁধে শ্বাসরোধ করে খুনের চেষ্টার পর তার ওপর যৌন নির্যাতন করে সে। পুলিশের দাবি, কামরুজ্জামান নিজেই সেকথা জানিয়েছিল পুলিশকে। ১৩টি মামলা চললেও এই ঘটনাকে পাখির চোখ করেছিল পুলিশ। এই মারাত্মক অপরাধের তথ্য প্রমাণ জোগাড়ে চেষ্টার ত্রুটি রাখেনি। একবছর ধরে শুনানির পর সেই ঘটনায় কামরুজ্জামানকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দিল কালনা আদালত।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: East Bardhaman, Kalna chainman

পরবর্তী খবর