corona virus btn
corona virus btn
Loading

কাটোয়ায় আসছে ২১ টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন, তুঙ্গে প্রশাসনিক প্রস্তুতি

কাটোয়ায় আসছে ২১ টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন, তুঙ্গে প্রশাসনিক প্রস্তুতি

ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্ত পাঁচ রাজ্য মহারাষ্ট্র, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ ,গুজরাট, তামিলনাড়ু থেকে যেসব যাত্রীরা আসছেন তাদের বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে।

  • Share this:

#কাটোয়া: দলে দলে বাইরের রাজ্য থেকে আসছেন বাসিন্দারা। আসছেন বিশেষ ট্রেনে বোঝাই হয়ে। শুধুমাত্র পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া স্টেশনেই দাঁড়াবে ২১টি ট্রেন। নামবেন বেশ কয়েক হাজার যাত্রী। তাদের শারীরিক পরীক্ষার পর এলাকায় পৌঁছে দিতে এখন কাটোয়ায় প্রশাসনিক প্রস্তুতি তুঙ্গে।

শনিবার সকাল থেকে ট্রেন ঢুকবে বলে আশা করছে প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাত্রীদের নামানো হবে। এরপর তাদের প্ল্যাটফর্মে রাখা চেয়ারে বসিয়ে একে একে প্রত্যেকের শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। থার্মাল গানে তাদের শারীরিক তাপমাত্রা মাপা হবে। এরপর তাদের খাবার ও ওষুধের প্যাকেট দিয়ে এলাকায় পৌঁছে দেওয়া হবে।

ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্ত পাঁচ রাজ্য মহারাষ্ট্র, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ ,গুজরাট, তামিলনাড়ু থেকে যেসব যাত্রীরা আসছেন তাদের বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে। আঙুলে কালি দিয়ে বাইরের রাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের চিহ্নিত করা হবে।

পর পর আসবে ২১টি ট্রেন। তাই শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন আসা নিয়ে কাটোয়ায় প্রশাসনিক তৎপরতা তুঙ্গে।  এই ২১টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন হাওড়া থেকে ছেড়ে  উত্তরবঙ্গের দিকে যাওয়ার সময় কাটোয়া স্টেশনে থামবে।  স্পেশাল ট্রেনে পূর্ব বর্ধমান জেলা ছাড়াও মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, নদীয়া জেলার  পরিযায়ী শ্রমিকরা আসছেন বলে জেলা প্রশাসনের কাছে খবর রয়েছে। তাই প্রচুর সংখ্যক বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।  কাটোয়ায় বাসস্ট্যান্ডে  বিশেষ কেন্দ্র খোলা হয়েছে।বাসে চাপিয়ে সেখান থেকেই যাত্রীদের গন্তব্যে  পাঠানো হবে।

পূর্ব বর্ধমান জেলার  বাইরের  পরিযায়ী  শ্রমিকদের  জন্য স্টেশন থেকে নামিয়ে খাবার ও জল দিয়ে নির্দিষ্ট  বাসে করে পাঠানো হবে। তবে পূর্ব বর্ধমান জেলার শ্রমিকদের স্ক্রিনিং করার পর  বাস ধরার সুযোগ মিলবে।  শনিবার  সকাল থেকেই স্পেশাল  ট্রেন  আসা শুরু হবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: June 5, 2020, 9:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर