• Home
  • »
  • News
  • »
  • off-beat
  • »
  • মধ্যমা আর অনামিকার গঠনই বলে দেবে আপনার চরিত্র

মধ্যমা আর অনামিকার গঠনই বলে দেবে আপনার চরিত্র

মধ্যমা আর অনামিকার গঠন বৈশিষ্ট্য দেখেও জাতক বা জাতিকার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য বোঝা যায় ৷ যেমন---

মধ্যমা আর অনামিকার গঠন বৈশিষ্ট্য দেখেও জাতক বা জাতিকার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য বোঝা যায় ৷ যেমন---

মধ্যমা আর অনামিকার গঠন বৈশিষ্ট্য দেখেও জাতক বা জাতিকার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য বোঝা যায় ৷ যেমন---

  • Share this:

    #কলকাতা: হাতের রেখা দেখে যেমন ভাগ্য নির্ধারিত হয়, তেমনই হাতের আঙুলের গঠনও ভাগ্যের কিছু কিছু দিক নির্দেশ করে ৷ মধ্যমা আর অনামিকার গঠন বৈশিষ্ট্য দেখেও জাতক বা জাতিকার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য বোঝা যায় ৷ যেমন---

    মধ্যমা মধ্যমা অন্য সব আঙুলের চেয়ে দীর্ঘ হওয়াই বেশ ভাল। এই আঙুলের অধিপতি হলেন শনি। শনি বাস্তবতা, নানা দুঃখ, বিপত্তি, ন্যায়পরায়ণতা, আধ্যাত্মিকতা, কুটিলতা, উদারতা ও অনিষ্টের কারক। শনি অনুকুল হলে মানুষকে সৌভাগ্যবান করে। এই শনি আবার প্রতিকূল হলে বর্বরতা, নৃশংসতা, দুঃখ ইত্যাদির কারক হয়। তাই মানুষের মধ্যে এই আঙুলের দৈর্ঘ্য অস্বাভাবিক হলে দেখা যায় জ্ঞানের গভীরতার সঙ্গে পাশবিকতার সহজাত বিকাশ। যদি জাতকের আঙুল পাশের দুটি আঙুলের চেয়ে (তর্জনী ও অনামিকা) ছোট হয়, তাহলে দেখা যাবে জাতক পাগল ও তার মধ্যে কিছুটা পাগলামির লক্ষন আছে। যদি জাতকের আঙুল বাঁকা হয় তবে বুঝতে হবে—বাত , নেত্র, হাঁপানি, অঙ্গহানি, প্রভৃতি কোনও একটার সম্ভবনা আছে তার মধ্যে। তার প্রকৃতি হবে অশান্ত ও অসংযত। এই আঙুল বেশি বাঁকা হলে মানসিক ব্যাধি ও নেত্ররোগ আক্রান্ত হয়। এই আঙুল যদি অতি ক্ষুদ্র হয় তবে, তা অস্থির মনোভাবের লক্ষন।

    আরও পড়ুন: শুধু এই খাবারগুলো খান, ব্রণ সারবে চট জলদি

    অনামিকা অনামিকার অন্য নাম হলো রবির আঙুল। রবি প্রকাশ করে শিল্পকলা, সৌন্দর্য ও স্বাভাবিক ব্যক্তিত্ব। অবশ্য মানুষের মনে আত্ম-প্রতিষ্ঠার আকাঙ্ক্ষা এই রবিরই আনুকুল্ল্যে হয়। এবার অনামিকার আকৃতিগত দিক দেখে নেওয়া যাক অনামিকা বাঁকা হলে, জাতকের সৌন্দর্যজ্ঞান থাকে। এটি সোজা, দীর্ঘ ও আরক্ত হলে, কলাশিল্প ও সৌন্দর্যবোধকে উদ্বুদ্ধ করে। তাছাড়া জাতকের মধ্যে কবি, সাহিত্যিক, শিল্পী, গায়ক ও খেলোয়াড় ইত্যাদি যে কোনটি হওয়ার সম্ভবনা থাকে। এই আঙুল বাঁকা হলে, জাতকের শিল্পজ্ঞান কম থাকে ও তাকে অসামাজিক করে তোলে। সে সবার সঙ্গে সমানভাবে মিশতে পারে না। জাতকের জীবনে উন্নতির মূলে রবি।

    First published: