• Home
  • »
  • News
  • »
  • off-beat
  • »
  • এই ধরনের জমিতে বাড়ি বানান, সমৃদ্ধি আসবেই

এই ধরনের জমিতে বাড়ি বানান, সমৃদ্ধি আসবেই

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে ভূমিকে চারটি শ্রেণিতে বিভাজিত করা হয়েছে।

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে ভূমিকে চারটি শ্রেণিতে বিভাজিত করা হয়েছে।

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে ভূমিকে চারটি শ্রেণিতে বিভাজিত করা হয়েছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: স্বপ্নের বাড়ি তো তৈরি করলেন ৷ কিন্তু সেই বাড়ি আদৌ বাস্তুসম্মত তো ? জানেন কী বাড়ির জমির উপরেও নির্ভর করে থাকে আপনার ভাগ্য ৷ জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে ভূমিকে চারটি শ্রেণিতে বিভাজিত করা হয়েছে। ১। গজ পৃষ্ঠ, ২। কূর্ম পৃষ্ঠ, ৩।দৈত্য পৃষ্ঠ, ৪। নাগ পৃষ্ঠ। ভূমির ভাল মন্দ সম্পর্কে বাস্তু শাস্ত্র কী বলছে জেনে নেওয়া যাক - ১। দক্ষিণ, পশ্চিম, নৈর্ঋত ও বায়ব্য কোণের দিকের উঁচু জমি হল গজ পৃষ্ঠ। এরকম জমিতে বাড়িঘর করে বসবাস করলে মানুষ ধনসম্পদ-ঐশ্বর্যে পরিপূর্ণ থাকে এবং তার আয়ু বাড়ে। ২। মাঝখানে উঁচু এবং চার দিকে নিচু জমিকে কূর্ম পৃষ্ঠ বলা হয়। কূর্ম পৃষ্ঠ জমিতে বাড়ি করে বসবাস করলে প্রতিদিন উত্সাহ বৃদ্ধি হয়। প্রচুর পরিমাণে ধন সম্পত্তি বৃদ্ধি ও প্রতিষ্ঠা লাভ হয়।

    আরও পড়ুন: জেনে নিন কখন কোনও দম্পতির যমজ সন্তান হয় ?

    ৩। পূর্ব, অগ্নি ও ঈশান কোণে উঁচু ও পশ্চিম দিকে নিচু জমিকে দৈত্য পৃষ্ঠ ভূমি বলা হয়। দৈত্য পৃষ্ঠ জমিতে বাড়ি করলে সেই বাড়িতে কখনও ধনদেবীর কৃপা হয় না। এই রকম জমির বাড়িতে বসবাস করলে ধন, পুত্র ও পশু ইত্যাদির হানি ঘটে। ৪। পূর্ব থেকে পশ্চিম দিকে লম্বা ও উত্তর এবং দক্ষিণ দিকে উঁচু ও মাঝখানে কিছুটা নিচু জমিকে নাগ পৃষ্ঠ জমি বলা হয়। এই রকম জমিতে বসবাসকারীর মৃত্যুভয়, স্ত্রী-পুত্রাদি হানি এবং পদে পদে শত্রু বৃদ্ধি ঘটে থাকে।

    First published: