Animal Trafficking: মুখে কাপড় বেঁধে খাঁচাবন্দি হাজার হাজার টিয়াপাখি পাচারের আগেই মালদায় ধৃত ১!

মুখে কাপড় বেঁধে খাঁচাবন্দি হাজার হাজার টিয়াপাখি পাচারের আগেই মালদায় ধৃত ১!

পাচার হওয়ার আগেই হাজার খানেক খাঁচাবন্দি টিয়া সমেত এক পাচারকারীকে গ্রেফতার করল মালদহ রেল পুলিশ (Animal Trafficking)।

  • Share this:

#মালদা: পাচার হওয়ার আগেই হাজার খানেক খাঁচাবন্দি টিয়া সমেত এক পাচারকারীকে গ্রেফতার করল মালদহ রেল পুলিশ (Animal Trafficking)। মঙ্গলবার রাতে কলকাতাগামী ডাউন যোগবানী এক্সপ্রেসের একটি সংরক্ষিত কামরা থেকে ওই পাচারকারীকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। রেল পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত যুবকের নাম শেখ শহিদ। কাটিহার থেকে যোগবানী এক্সপ্রেসে উঠেছিলেন। তাঁর টিকিট বর্ধমান পর্যন্ত সংরক্ষিত ছিল।

তবে, পাখিগুলি কোথা থেকে তিনি নিয়ে এসেছিলেন বা কোথায় পাচারের ছক ছিল তা এখনও স্পষ্ট হয়নি। ধৃতের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় এক হাজার টিয়াপাখি ও একটি বিরল প্রজাতির ময়না বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে যোগবানী এক্সপ্রেসে তল্লাশি চালান রেল পুলিশের জওয়ানরা। ট্রেনের স্লিপার কোচের ৮ নম্বর কামরা থেকে পাখিগুলি উদ্ধার হয়। পাখি সমেত ধৃত যুবককে মালদা ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

মালদা আরপিএফ এর ইন্সপেক্টর বি শর্মা আরও জানান, 'ধৃত যুবক কাটিহার থেকে টিকিট কেটে ট্রেনে উঠেছিল। আর সেই টিকিট বর্ধমান পর্যন্ত কাটা ছিল। বিশেষ সূত্রে খবর, আগে থেকেই ছিল যার ফলে ট্রেনটি যখন তিন নম্বর প্লাটফর্মে ঢুকে তখনই আমাদের আরপিএফ কর্মীরা ৮ নম্বর স্লিপার কোচের উঠে তল্লাশি চালিয়ে টিয়া পাখি সমেত ওই যুবককে হাতেনাতে ধরে ফেলে। তবে ধৃত ওই যুবক পাখিগুলি কোথা থেকে নিয়ে কোথায় যাচ্ছিল সেটা এখনও পরিষ্কার হয়নি। তবে ওই যুবক পাচারকারীর কাজে যুক্ত। আমরা উদ্ধার হওয়া পাখি গুলি সহ ধৃত ওই যুবককে মালদা ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসারের হাতে তুলে দিয়েছি।'

ওই যুবককে এই মুহূর্তে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। আর কেউ এই দলে জড়়িয়ে কিনা তা দেখা হচ্ছে।

Published by:Raima Chakraborty
First published: