• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • একের পর এক ইস্তফা, পোস্টার, ফ্লেক্সে ছয়লাপ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়

একের পর এক ইস্তফা, পোস্টার, ফ্লেক্সে ছয়লাপ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়

চরম অচলাবস্থা, পোস্টার, ফ্লেক্সে ছয়লাপ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়

চরম অচলাবস্থা, পোস্টার, ফ্লেক্সে ছয়লাপ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়

ফের বিতর্কের কেন্দ্রে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। একদিকে প্রশাসনিক জটিলতা, অন্যদিকে লাগাতার কর্মী আন্দোলন।

  • Share this:

    SEBAK DEBSARMA #মালদহ: ইস্তফা দিয়েছেন উপাচার্য। ইস্তফা দিয়েছেন বিত্ত আধিকারিকও। অসুস্থতার কারন দেখিয়ে আসছেন না রেজিষ্টার। অন্যদিকে স্থায়ীকরন-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার ১৪ দিন ধরে কর্মবিরতি চালিয়ে যাচ্ছেন শতাধিক অস্থায়ী কর্মী। বেতন পাননি আধিকারিক থেকে স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মীরা। কার্যতঃ লাটে উঠেছে পড়াশুনা। বিভিন্ন কাজে এসে নাকাল হচ্ছে ছাত্রছাত্রীরা। সব মিলিয়ে চরম অচলাবস্থার ছবি মালদহের গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে। ফের বিতর্কের কেন্দ্রে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। একদিকে প্রশাসনিক জটিলতা, অন্যদিকে লাগাতার কর্মী আন্দোলন। এই দুয়ের মাঝে পড়ে চরম সঙ্কটে পড়েছে কয়েক হাজার ছাত্রছাত্রী। মালদহের গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে রয়েছে উত্তরবঙ্গের তিন জেলার ২৬ টি কলেজ। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ২৩ টি স্নাতকোত্তর বিভাগে পড়ুয়ার সংখ্যা প্রায় দুই হাজার। বারবারই নানা সমস্যায় শিরোনামে এসেছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি নতুন করে দেখা দিয়েছে অচলাবস্থা। গত সপ্তাহে ব্যক্তিগত কারন দেখিয়ে ইস্তফা দিয়েছেন উপাচার্য স্বাগত সেন। তাঁর পদত্যাগ পত্র গৃহিত হযেছে কিনা সেই বিষয়ে এখনও স্পষ্ট কোনো খবর নেই বিশ্ববিদ্যালয়ে। অন্য কাউকে উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়া হযেছে এমন খবরও নেই। malda university 1 এরই মধ্যে জটিলতা আরও বেড়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত বিত্ত আধিকারিক (Finance Officer) ভাস্কর বাগচী ইস্তফা দেওয়ায়। অন্যদিকে, ভারপ্রাপ্ত রেজিষ্টার বিপ্লব গিরি শারীরিক অসুস্থতার কারনে গড় হাজির বিশ্ববিদ্যালয়ে। ফলে কার্যত প্রশাসনিক কোনো কাজই হচ্ছে না। এমনকি হয়নি নভেম্বর মাসের বেতনও। সমস্যা আরও বেড়েছে অস্থায়ী কর্মীরা সকলেই স্থায়ীকরন সহ একাধিক দাবিতে কর্ম বিরতি শুরু করায়। সমস্যা জটিল বলে স্বীকার করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন আধিকারিক সমীর পুততুন্ডি। গত ২০ নভেম্বর থেকে মালদহের গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে অস্থায়ী কর্মীদের আন্দোলন। সারা বাংলা তৃনমূল শিক্ষাকর্মী সমিতির ছত্র ছায়ায় লাগাতার কর্ম বিরতি শুরু করেছেন ১২২ জন অস্থায়ী কর্মী। তাঁদের দাবি, রাজ্য সরকারের ঘোষিত কোনো সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন না তাঁরা। malda university 2 তাঁদের দাবিকে সমর্থন করে নিজেদের বেতন বৃদ্ধির দাবি তুলে সরব হয়েছেন বাকী ১৬ জন স্থায়ী কর্মীও। ফলে স্থায়ী ও অস্থায়ী কোনো কর্মীই কাজে যোগ দিচ্ছেন না। এই অবস্থায় পড়ুয়াদের মাইগ্রেশন, স্কলারশিপ, লাইব্রেরী কার্ড তৈরী, রেজিষ্ট্রেশন সব কাজই স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে এমনকি শৌচাগারের সাফাই পর্যন্ত বন্ধ। ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর বিভিন্ন দাবি দাওয়ার সমর্থনে পোষ্টার, ফ্লেক্সে ছয়লাপ। প্রতিদিনই চলছে মিছিল, বিক্ষোভ। বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থার স্বীকার সাধারন ছাত্রছাত্রীরা। এসবের জেরে অধিকাংশ বিভাগেই নিয়মিত ক্লাস হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া সুদীপ্তা দাস, ঐন্দ্রিলা সিংহরা দাবি করেছেন অচলাবস্থা কাটাতে অবিলম্বে সদর্থক ব্যবস্থা নিক রাজ্য সরকার। আতঙ্ক গ্রাস করছে পড়ুয়াদের।

    First published: