মেগা ফ্রাইডেতে তৃণমূলে নক্ষত্র যোগ, এলেন উজ্জ্বল, সপ্তর্ষি

মেগা ফ্রাইডেতে তৃণমূলে নক্ষত্র যোগ, এলেন উজ্জ্বল, সপ্তর্ষি

স্বচ্ছ ভাবমুর্তির উজ্জ্বল বাবুকে মালদহ থেকে প্রার্থী করতে চেয়েছিল বিজেপি। তাই রাতারাতি তাঁর তৃণমূলের পতাকা নেওয়া কার্যত বেশ বড় ধাক্কা দিল গেরুয়া শিবিরকে।

স্বচ্ছ ভাবমুর্তির উজ্জ্বল বাবুকে মালদহ থেকে প্রার্থী করতে চেয়েছিল বিজেপি। তাই রাতারাতি তাঁর তৃণমূলের পতাকা নেওয়া কার্যত বেশ বড় ধাক্কা দিল গেরুয়া শিবিরকে।

  • Share this:

    #কলকাতা  দুপুর নাগাদ চূড়ান্ত হয়ে যাবে পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা। তার আগেই সরগরম তৃণমূল শিবির। শুক্রবার সকালেই তৃণমূলের দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিয়ে দলে যোগ নিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী উজ্জ্বল চৌধুরী এবং জনপ্রিয় চক্ষু বিশেষজ্ঞ, সপ্তর্ষি ব্যানার্জী।

    এদিন তৃণমূল ভবনে বিশিষ্টদের যোগদান অনুষ্ঠানে একযোগে দলীয় স্লোগান দিয়ে তৃণমূলের পতাকা তুলে নেন মালদহের ব্যবসায়ী উজ্জ্বল বাবু। আগেও মমতা ব্যানার্জীর ভাবধারায় আস্থা রাখা ব্যবসায়ী বলেেন, কাজ করতে বাঁধা পেতে হচ্ছে বার বার। তাই মানুষের জন্য কিছু করতেই এই সিদ্ধান্ত।

    এদিকে মালদহে বিজেপির জেলা পরিষদ সদস্য তৃণমূল শিবিরে যোগ দেওয়ায় হইচই বেঁধে যায় স্থানীয় বিজেপি শিবিরে। বিজেপির এসসি মোর্চার রাজ্য সহ-সভাপতি ছিলেন উজ্জ্বল। তৃণমূলের পতাকা হাতে নিয়ে তিনি বলেন, "বিজেপিতে কাজ করতে পারছিলাম না। দলে কোনো মর্যাদা দেওয়া হয়নি। তাই, তৃণমূলে প্রত্যাবর্তনের সিদ্ধান্ত।" চিকিৎসক সপ্তর্ষি ব্যানার্জীও  তাঁর কথায়, "দিদির সঙ্গে বাংলার উন্নয়নে থাকতে চাইছি। বাংলার মানুষের জন্য কাজ করতে চাই।

    উল্লেখ্য, স্বচ্ছ ভাবমুর্তির উজ্জ্বল বাবুকে মালদহ থেকে প্রার্থী করতে চেয়েছিল বিজেপি। তাই রাতারাতি তাঁর তৃণমূলের পতাকা নেওয়া কার্যত বেশ বড় ধাক্কা দিল গেরুয়া শিবিরকে। স্থানীয় নেতাদের অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না। এদিকে দলীয় সূত্রে খবর, তৃণমূলের হয়ে উজ্জ্বল চৌধুরীর মালদায় লড়াইয়ের সম্ভাবনা বেশ জোরালো।

    উজ্জ্বল চৌধুরীর তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে বিজেপি জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল বলেন, "উনি কাজ করার যথেষ্ট সুযোগ পেয়েছিলেন। রাজ্যের পদ ও দেওয়া হয়েছিল। মালদহ বিধানসভায় দলের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে ভাবা হয়েছিল উজ্জ্বল বাবুকে তিনি দলত্যাগ করছেন ভাবতে পারছিনা।"

    প্রসঙ্গত, তৃণমূল সূত্রে খবর, বেলা একটা নাগাদ নির্বাচন কমিটির বৈঠকের পর বেলা তিনটে নাগাদ দলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে| তারপরেই কোমড় বেঁধে নির্বাচনী যুদ্ধে নামবে ঘাসফুল শিবির| সূত্রের খবর, বেশ কিছু জায়গায় তারকা প্রার্থী থাকবেন এই তালিকায়।

    ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক মহলে শোনা যাচ্ছে বেশ কিছু নাম। তবে একইসঙ্গে কিছু কিছু জায়গার দলীয় শিবির প্রার্থী হিসেব ভূমিপুত্রকেই চাইছে। তাই শেষ মুহূর্তে উজ্জ্বল চৌধুরী বা সপ্তর্ষি ব্যানার্জীর মত স্বচ্ছ ভাবমুর্তির ব্যাক্তিত্বদের যোগদান বেশ অর্থবহ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

    সেবক দেবশর্মা

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published:

    লেটেস্ট খবর