Home /News /north-bengal /
Dhupguri: টোটোচালকের সততার নজির ! পুলিশে অভিযোগ জানানোর আগেই হারিয়ে যাওয়া ফোন ফেরত

Dhupguri: টোটোচালকের সততার নজির ! পুলিশে অভিযোগ জানানোর আগেই হারিয়ে যাওয়া ফোন ফেরত

Representative Image

Representative Image

Dhupguri: বাজারে কেনাকাটা করে বাস ধরার তাগিদে তাড়াহুড়ো করে টোটো থেকে নেমে পড়েন ধূপগুড়ি সুকান্ত মহাবিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী বৈশালী বসাক।

  • Share this:

    ধূপগুড়ি : হারিয়ে যাওয়া মোবাইল কলেজছাত্রীকে ফিরিয়ে দিল টোটোচালক। সততার প্রমাণ দিলেন ধূপগুড়ির মানবিক টোটো চালক কার্তিকচন্দ্র দত্ত। ঘটনাটি ঘটেছে ধুপগুড়ি (Dhupguri) বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায়। জরুরি কাজে বাড়ি থেকে বেরিয়ে ছিলেন কলেজ ছাত্রী বৈশালী বসাক। বাজারে কেনাকাটা করে বাস ধরার তাগিদে তাড়াহুড়ো করে টোটো  থেকে নেমে পড়েন ধূপগুড়ি সুকান্ত মহাবিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী বৈশালী বসাক।

    বাসটি ধূপগুড়ি থেকে বেরিয়ে যায়, কিন্তু স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় যেতেই বৈশালী বুঝতে পারেন যে তাঁর কাছে মোবাইল নেই। তড়িঘড়ি চলন্ত বাস থেকে নেমে পড়েন তিনি। এর পর ধূপগুড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ জানানোর জন্য ছুটে যান। সে সময় ধূপগুড়ি থানার এক পুলিশকর্মী সেই ছাত্রীর মোবাইল নাম্বার নিয়ে তাঁর ফোনে ডায়াল করেন এবং এক ব্যক্তি ফোন তোলেন। উল্টো দিক থেকে তিনি বলেন, " এই ফোনটি আমার না ।আমি ফোনটি কুড়িয়ে পেয়েছি । আমি এখন ফোনটি নিয়ে থানার সামনে আছি। ফোন থানায় জমা করতে যাচ্ছি।"

    যিনি ফোন ধরেছিলেন তিনিই টোটোচালক কার্তিকচন্দ্র দত্ত। কয়েক মিনিটের মধ্যেই কার্তিক বাবু থানায় পৌঁছে মোবাইল ফোনটি সেই ছাত্রীর হাতে তুলে দেন।  এদিকে অভিযোগ জানানোর আগেই ছাত্রীটি মোবাইল ফোন ফিরে পাওয়ায় রীতিমতো খুশি। তিনি ধন্যবাদ জানান টোটো চালককে।

    আরও পড়ুন : দোলে রং খেলা থেকে বেড়াতে যাওয়া, আদরের মেয়ের নানা মুহূর্তের ছবি ছড়িয়ে আছে অভিষেকের প্রোফাইলে

    বৈশালী বসাক বলেন, "আমি টোটো করে বাজারে এসেছিলাম কেনাকাটা করবার জন্য। কেনাকাটা করে তাড়াহুড়ো করে বাসে উঠে পড়ি, কখন মোবাইল ফোনটি পড়ে গিয়েছে বুঝতেই পারিনি। বাসটি স্টেশন মোড় পৌঁছলে আমি বাড়িতে ফোন করব বলে ব্যাগ থেকে ফোন বার করতে গেলে বুঝতে পারি মোবাইলটি নেই। আমি ধূপগুড়ি থানায় ছুটে যাই অভিযোগ জানাতে। অভিযোগ জানানোর আগেই এক টোটোচালক থানায় পৌঁছন। আমাকে থানায় দেখে উনি চিনতে পারেন। তখনই উনি ফোনটি আমার হাতে তুলে দেন। আমি মোবাইল ফিরে পাওয়ায় খুব খুশি। এখন এই ধরনের সৎ মানুষ খুঁজে পাওয়া দুস্কর।"

    আরও পড়ুন : ‘লক্ষ্মীর ভাঁড় ভেঙে খেতে হয়েছিল’! পর পর ছবি থেকে বাদ পড়ায় টিভি শো-এ বসে কাদের কাঠগড়ায় দাঁড় করান অভিষেক?

    আরও পড়ুন : ছোট্ট কেশবকে কোলে নিয়েই আনন্দ সংবাদ জানালেন অভিনেত্রী মধুবনী

    কার্তিকচন্দ্র দত্ত বলেন,  "মেয়েটি টোটোয় করে বাজার আসেন। তাড়াহুড়ো করে টোটো থেকে বাসে উঠে পড়েন।  আমি অন্য যাত্রী নিয়ে যখন কলেজের দিকে যাচ্ছিলাম, দেখি টোটোর সামনে একটি মোবাইল পড়ে রয়েছে। আমি বুঝতে পারি আমার কোনও প্যাসেঞ্জারের হবে। আমি থানায় জমা দিতে গেলে দেখি মেয়েটিও থানায় এসেছেন। সঙ্গে সঙ্গে মোবাইলটি তাঁর হাতেই তুলে দিই।"

    ( প্রতিবেদন : রকি চৌধুরী)

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Dhupguri

    পরবর্তী খবর