চাই টিকা, খুলতে হবে স্কুল, উত্তরে আন্দোলনের পথে এসএফআই

দ্রুত স্কুল খুলতে হবে। দাবিতে সরব এসএফআই।

প্রতিবাদে লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে আজ থেকেই পথে নামল সিপিএমের ছাত্র সংগঠন। নিজেদের দাবির সমর্থনে সঙ্গে চলছে গণ সাক্ষর অভিযান।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: অবিলম্বে বেসরকারি স্কুলগুলোতে বর্ধিত হারে ফি কমাতে হবে। সেইসঙ্গে ছাত্র-ছাত্রীদের ভ্যাকসিনেশনের আওতাভুক্ত করে স্কুল ও কলেজ খুলতে হবে। এই দুই দাবিকে সামনে রেখে শিলিগুড়িতে আন্দোলনে নামলো এসএফআই। তাদের দাবি, বাজারহাট, মার্কেট খোলা। অন্যান্য পরিষেবাও অনেকটাই স্বাভাবিক। অথচ স্কুল, কলেজের দরজা বন্ধ। এবারে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। এর জেরে বাড়ছে ড্রপ আউটের সংখ্যা। কেন বন্ধ স্কুল, কলেজ? পড়ুয়াদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিয়ে দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও স্বাভাবিক ছন্দে ফেরাতে হবে। অন্য ক্ষেত্র স্বাভাবিক হলেও স্কুল নয় কেন?  প্রতিবাদে লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে আজ থেকেই পথে নামল সিপিএমের ছাত্র সংগঠন। নিজেদের দাবির সমর্থনে সঙ্গে চলছে গণ সাক্ষর অভিযান।

আগামী শুক্রবার মহকুমা শাসকের মাধ্যমে গণ সাক্ষরের তালিকা সহ মুখ্যমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি পাঠাবে তারা।সংগঠনের দার্জিলিং জেলা সভাপতি সাগর শর্মা জানান, বহু বেসরকারী ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে বর্ধিত হারে ফি আদায় করা হচ্ছে। স্কুল বন্ধ, অথচ একাধীক খাতের ফি নেওয়া হচ্ছে। যা অনেক অভিভাবকের পক্ষেই দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কেননা করোনাকালে অনেক অভিভাবকই আর্থিক সংকটে ভুগছে। বহু অভিভাবক ইতিমধ্যেই তাদের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে। একাধীকবার স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে নালিশ জানালেও সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। প্রশাসন নীরব। বহু স্কুলে অভিভাবক, অভিভাবিকারা ফি কমানোর দাবীতে আন্দোলন করলেও সুরাহা মেলেনি।

সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই পথে নেমেছে তারা। লাগাতার আন্দোলন হবে। আজ শিলিগুড়ির হাসমি চকে বিক্ষোভ দেখায় তারা। সেইসঙ্গে স্কুল এবং কলেজ খোলার দাবীতে গণ সাক্ষর অভিযান চালায়। মহকুমাজুড়ে চলবে তাদের ওই কর্মসূচী। সংগৃহীত সাক্ষর সম্বলিত দাবিপত্র রাজ্যের কাছে পাঠাবে তারা। প্রতিটি ছাত্র, ছাত্রীকে টিকা দেওয়াও বাধ্যতামূলক করার দাবী জানিয়েছে তারা। কোভিড বিধি মেনেই খুলতে হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। নইলে ছাত্র, ছাত্রীদের ভবিষ্যত প্রশ্নের মুখে পড়বে বলেও দাবি এসএফআই-এর।

Published by:Shubhagata Dey
First published: