উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

সময়ে খোলে না গ্রাম পঞ্চায়েত, তালাই ঝুলিয়ে দিল বিক্ষোভকারীরা

সময়ে খোলে না  গ্রাম পঞ্চায়েত, তালাই ঝুলিয়ে দিল বিক্ষোভকারীরা

ইচ্ছেমতো অফিসে আসেন পঞ্চায়েতের কর্মীরা। অভিযোগ, হেলদোল নেই খোদ প্রধানেরও।

  • Share this:

#মালদহ: ইচ্ছেমতো অফিসে আসেন পঞ্চায়েতের কর্মীরা। অভিযোগ, হেলদোল নেই খোদ প্রধানেরও। প্রতিবাদে মালদহের চাঁচলে তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতে তালা মেরে বিক্ষোভ। নেতৃত্বে তৃণমূলেরই পঞ্চায়েত সদস্য ও দলীয় কর্মী-সমর্থকরা।

চাঁচলের অলিহণ্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা। মঙ্গলবার সকাল ১১টা বেজে যাওয়ার পরও পঞ্চায়েতের কর্মী, আধিকারিকেরা অফিসে না আসায় ক্ষোভ। প্রতিদিনই নির্দিষ্ট সময়ের থেকে অনেক দেরিতে কর্মীরা পঞ্চায়েতে আসেন বলে অভিযোগ। এর ফলে পরিষেবা পেতে সমস্যায় পড়েন সাধারণ মানুষ। অভিযোগ, এরআগেও বারবার কর্মীদের সতর্ক করেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

 মঙ্গলবার সকাল ১১টার পর পঞ্চায়েত অফিসে গিয়ে দেখা যায় তালা খোলেনি। অথচ, পঞ্চায়েতের বাইরে বসে রয়েছেন একমাত্র পঞ্চায়েত সচিব। বাকি কোন কর্মী পঞ্চায়েতে আসেননি। এদিকে বিভিন্ন প্রয়োজনে পঞ্চায়েতে এসে দাঁড়িয়ে রয়েছেন সাধারণ মানুষজন।

ধৈর্যের বাঁধ ভাঙে। এরপরে পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে পঞ্চায়েতের দরজায় তালা মেরে শুরু হয় বিক্ষোভ। বেলার দিকে অন্যান্য কর্মীরা পঞ্চায়েতে এলেও তাঁদের ঢুকতে দেননি বিক্ষোভকারীরা।  দুপুরের দিকে পঞ্চায়েতের কর্মীরা আগামীতে নিয়মিত সময় মেনে পঞ্চায়েতের আসবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়াতে পঞ্চায়েতের তালা খুলে দেওয়া হয়। তবে এরপরেও কর্মসংস্কৃতির উন্নয়ন না ঘটলে ফের বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

Sebak DebSarma

Published by: Debalina Datta
First published: November 4, 2020, 10:00 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर