Home /News /north-bengal /

স্বপ্নাদেশ পেয়ে গ্রামের হিন্দুদের ডেকে কালী পুজো শুরু করেন মুসলিম মহিলা

স্বপ্নাদেশ পেয়ে গ্রামের হিন্দুদের ডেকে কালী পুজো শুরু করেন মুসলিম মহিলা

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

স্বপ্ন কি কখনও ধর্ম মানে? না। তাই বলেই তো কালীর পুজো শুরুর স্বপ্ন দেখেছিলেন মালদহের হবিবপুরের মুসলিম মহিলা।

  • Share this:

    #মালদহ: স্বপ্ন কি কখনও ধর্ম মানে? না। তাই বলেই তো কালীর পুজো শুরুর স্বপ্ন দেখেছিলেন মালদহের হবিবপুরের মুসলিম মহিলা। স্বপ্নাদেশ পেয়ে গ্রামের হিন্দুদের এক জায়গায় নিয়ে আসেন সেফালি বেওয়া। আজ তাঁর উদ্যোগেই কেন্দুয়া গ্রামের কালী পুজো মানে, সম্প্রীতির নজির।

    মালদহ শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে হবিবপুরের বুলবুলচণ্ডী। আটাশ বছর আগে এখানকার কেন্দুয়া গ্রামেই এক সকালে হৈচৈ পড়ে যায়। গ্রামের সকলকে ডেকে কালী পুজো শুরুর আবেদন জানান শেফালি বেওয়া। তাতে গ্রামের মঙ্গল হবে বলেও তিনি স্বপ্নাদেশ পান বলে জানান মুসলিম মহিলা। মনগড়া কথা ভেবে, অনেকেই তাঁকে এড়িয়ে যান। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যেই গ্রামে কিছু অলৌকিক ঘটনা ঘটতে থাকে। এরপরই মুসলিম মহিলার কথা মানতে বাধ্য হন গ্রামের হিন্দুরা।

    সেফালির কথা মেনেই শুরু হয় চাঁদা তোলা। বয়সের ভারে এখন আর সেফালি বাড়ি বাড়ি চাঁদা তুলতে যান না। তবে নিজের সঞ্চয় থেকে মোটা অংকের টাকা দেন পুজোর জন্য। পুজোর প্রস্তুতির দিকেও নজর রাখতে হয় তাঁকে।

    দেখতে দেখতে কেটে গিয়েছে আটাশ বছর। শেফালির কালী পুজো আজ সর্বজনীন। একইসঙ্গে সম্প্রীতিরও।

    First published:

    Tags: Diwali, Diwali 2017, Kali Puja, Muslim Women

    পরবর্তী খবর