পরীক্ষার হলেই জ্ঞান হারাল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ! হাসপাতালে বসেই দিল বাকি পরীক্ষা

পরীক্ষার হলেই জ্ঞান হারাল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ! হাসপাতালে বসেই দিল বাকি পরীক্ষা

মানিকচক গাজোল হাসপাতালে বসেই বাকী পরীক্ষা দেয় ওই ছাত্রী।

  • Share this:

#মালদহ:- উচ্চমাধ্যমিক চলাকালীন আচমকা জ্ঞান হারায় ছাত্রী। তড়িঘড়ি স্কুল থেকে তাকে এনে ভর্তি করা হয় মানিকচক গ্রামীন হাসপাতালে।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার দ্বিতীয় দিনে শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে মানিকচকের এনায়েতপুর হাইস্কুলে। চিকিৎসকদের তৎপরতায় পরীক্ষা শেষের নির্দিষ্ট সময়ের কিছু আগে খানিকটা সুস্থ হয় ওই ছাত্রী। এরপর মানিকচক গাজোল হাসপাতালে বসেই বাকী পরীক্ষা দেয় ওই ছাত্রী। জানা গিয়েছে সুষমা খাতুন নামে ওই পড়ুয়া মথুরাপুরের তিলক সুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। তাঁর পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল এনায়েতপুর হাইস্কুল।

পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই জ্ঞান হারিয়ে লুটিয়ে পড়ে  ওই ছাত্রী। পরীক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষকেরা সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের সাহায্য নিয়ে তাঁকে হাসপাতালে পাঠান। চিকিৎসকরা তাঁকে হাসপাতালের ভর্তির পরামর্শ দেন। দীর্ঘক্ষন বাদে জ্ঞান ফেরে ওই ছাত্রীর। তাঁকে স্যালাইন দেওয়া হয়। এরপর সুস্থ হতেই পরীক্ষা দেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করে সে। কিন্তু ততক্ষণে পেরিয়ে যায় দু’ঘণ্টারও বেশি সময়।

এরপর হাসপাতালেই তাঁর পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। পুলিশ ও পরীক্ষকের উপস্থিতিতে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে কিছুক্ষণ পরীক্ষা দেয় সুষমা। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন শারীরিক দুর্বলতার কারনে এমন ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে। তবে আরও কিছু  পরীক্ষার প্রয়োজন হওয়ায় পরীক্ষা শেষের পরেও তাঁকে রাখা হয়েছে হাসপাতালে। চিকিৎসকদের তৎপরতায় মেয়ে পরীক্ষা দিতে পারায় খুশি পরিবারের লোকজন। তবে পরীক্ষার অনেকটা সময় অসুস্থ থাকায় পরীক্ষার ফল নিয়ে চিন্তায় আত্মীয়রা।

Sebak Deb Sharma

First published: March 14, 2020, 8:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर