উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

আগামিকাল পাহাড়ে যাচ্ছেন রাজ্যপাল ! তার আগেই ফের পাহাড়ের রাজনীতি সরগরম !

আগামিকাল পাহাড়ে যাচ্ছেন রাজ্যপাল ! তার আগেই ফের পাহাড়ের রাজনীতি সরগরম !

কাল এক মাসের পাহাড় সফরে শৈলশহরে পৌঁছবেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: কাল এক মাসের পাহাড় সফরে শৈলশহরে পৌঁছবেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। রাজভবনে সাজ সাজ রব। পুরো নভেম্বর মাসটাই তিনি কাটাবেন পাহাড়ে। এখান থেকে বসেই গোটা রাজ্যের দিকে নজর থাকবে তাঁর। বিভিন্ন সংগঠন, জন প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে। রাজ্যপালের শৈলশহর সফরের দিকে নজর থাকবে রাজ্যের শাসক দলেরও। তার আগের দিন আজ ফের পাহাড়ের রাজনীতি সরগরম। নামে শান্তি মিছিল হলেও আগাগোড়া ছিল বিমল গুরুংয়ের বিরোধিতা। দার্জিলিং, কালিম্পংয়ের পর আজ কার্শিয়ং। কলকাতায় তিন বছর পর বিমল গুরুং প্রকাশ্যে আসবার পর পাহাড়জুড়ে চলছে বিনয় তামাং এবং অনীত থাপাপন্থীদের শক্তি প্রদর্শন।

আজকের কার্শিয়ংয়ের মহা র‍্যালি তা দেখিয়ে দিয়েছে। হাজারে হাজারে লোক পা মেলালো পাহাড়ি শহরে। কার্যত রাস্তাঘাট অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। কার্শিয়ং ট্যুরিস্ট লজ থেকে মিছিল শুরু করে বিনয়পন্থী মোর্চার নেতা, সমর্থকেরা। যদিও মিছিলে যোগ দেননি বিনয় তামাং। অনীত থাপা থাকলেও ভাষণ পর্যন্ত দেননি। মিছিল থেকে বিমল গুরুং মুর্দাবাদ শোনা যায়। শান্ত পাহাড়কে অশান্ত হতে দেওয়া হবে না। বিনয় আর অনীত থাপার নামে জয়ধ্বনি শোনা যায়। যে বিমল গুরুংয়ের নেতৃত্বে পাহাড় কাঁপত, আজ তাঁর বিরুদ্ধেই স্লোগানে সরগরম পাহাড়। বিনয়পন্থী যুব মোর্চার কার্শিয়ংয়ের সভাপতি প্রভেন্দ্র গুরুং সাফ জানান, বিমল গুরুং নিজেই পাহাড় ছেড়ে চলে যান। আবার নিজেই আসবেন। তবে একজন সাধারন বাসিন্দা হিসেবে। নেতা হিসেবে নয়। তাঁকে আর পাহাড় নেতা হিসেবে মানবে না। তাঁর অনুগামীরা যে ভাষায় কথা বলছেন, যেভাবে পাহাড়ে পোস্টারিং করছেন, তাতে অশান্তির আশঙ্কা করছি। আমরা পাহাড়ে আর অশান্তি চাই না। তাই আজ এই শান্তি মিছিলের আয়োজন। আজ পাহাড়বাসীর উপস্থিতি প্রমান করছে বিমল গুরুংকে আর চায় না পাহাড়। তবে উনি এলে আমরা কোনও বাধা দেব না। অন্যদিকে বিনয় এবং বিমলপন্থীদের তরজায় ইতি টানতে চাইছে তৃণমূল। আগামী ২ অথবা ৩ নভেম্বর বিনয় তামাং, অনীত থাপাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী। যা রাজনৈতিকভাবে যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ন্য বলে মনে করছে রাজনৈতিকমহল।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by: Piya Banerjee
First published: October 31, 2020, 6:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर