কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে নারকীয় ধর্ষণ! প্রতিবন্দী যুবকের 'কীর্তি'তে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে

কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে নারকীয় ধর্ষণ! প্রতিবন্দী যুবকের 'কীর্তি'তে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে

প্রতীকী ছবি

হেমতাবাদ থানার বড়কান্তর গ্রামের এক নাবালিকা গতকাল বিকালে শাক তুলতে মাঠে গিয়েছিল। কাশেমপুরের বাসিন্দা মজনু মহম্মদ নামে এক প্রতিবন্দী তাকে সেখান থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে বলে অভিযোগ।

  • Share this:

#হেমাতাবাদ: কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগ প্রতিবেশী এক প্রতিবন্দী বিরুদ্ধে।অভিযুক্ত পলাতক। ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ থানার বড়কান্তর গ্রামে। হেমতাবাদ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে তার মেডিক্যাল করানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গিয়েছে, হেমতাবাদ থানার বড়কান্তর গ্রামের এক নাবালিকা গতকাল বিকালে শাক তুলতে মাঠে গিয়েছিল। পাশের গ্রাম আরজি কাশেমপুরের বাসিন্দা মজনু মহম্মদ নামে এক প্রতিবন্দী তাকে সেখান থেকে তুলে নিয়ে পুকুর পাড়ে আসেন।সেখানে তাকে ধর্ষন করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর অভিযুক্ত সেখান থেকে পালিয়ে যায়। সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পুকুর পাড়ে বেশ কিছুক্ষন পড়ে থাকার পর তাঙ্ক্ব উদ্ধার করা হয়। নাবালিকাকে পুকুর পাড়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে বলে অভিযোগ।

স্থানীয় বাসিন্দা কাশমীরা খাতুন নামে এক মহিলা সেই পথ দিয়ে যাবার সময় তাকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় দেখতে পান। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে সেখান তুলে বাড়িতে নিয়ে আসেন। জ্ঞান ফিরে মায়ের কাছে ঘটনাটি জানায়। এরপরই তাকে চিকিৎসার জন্য হেমতাবাদ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে আসে। আজ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে হেমতাবাদ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। হেমতাবাদ থানার পুলিশ অভিযোগ পেয়েই অভিযুক্তের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। পুলিশ এখনও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেনি। সে পলাতক। অভিযুক্তের খোঁজে হেমতাবাদ থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

হেমতাবাদ থানার পুলিশ অধিকারিক জানিয়েছেন, গতকাল হেমতাবাদ থানার আরজি কাশিমপুর এলাকায় একটি ধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে।আজ পুলিশের কাছে কিশোরীর মা লিখিত অভিযোগ দায়ের কারেছে। কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে।অভিযুক্তের বাড়িতে তল্লাশী চালানো হয়েছে। তাকে পাওয়া যায় নি।গতকাল ঘটনার পর আজ অভিযোগ করেছে কিশোরীর মা। দীর্ঘ সময় সে হাতে পাওয়ায় গ্রেফতারি এড়াতে গা ঢাকা দিয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তের খোঁজে জোর তল্লাশী চালাচ্ছে। খুব শীঘ্রই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা সম্ভব বলে আশাবাদী হেমতাবাদ পুলিশ আধিকারিক। যে তার মেয়ের উপর এ ধরনের নির্মম অত্যাচার করল তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন। অবিলম্বে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবি করেছে।স্থানীয় গ্রামবাসিরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না দিলে আগামী গ্রামবাসীরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন।

Uttam Paul 

Published by:Shubhagata Dey
First published:

লেটেস্ট খবর